নিউইয়র্ক স্টেট যুবলীগের শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস পালন

নিউইয়র্ক স্টেট আওয়ামী যুবলীগ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস পালন করেছে। এ উপলক্ষ্যে গত ২৫ মে রোববার সন্ধ্যায় জ্যাকসন হাইটস্থ পালকি পার্টি সেন্টারে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন যুক্তরাষ্ট্র যুবলীগের সভাপতি মিসবাহ আহমেদ এবং বিশেষ অতিথি ছিলেন যুক্তরাষ্ট্র যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ আব্দুল ওয়াহেদ। সভায় সভাপতিত্ব করেন স্টেট যুবলীগের সভাপতি জামাল হোসেন এবং সভা পরিচালনা করেন সাধারণ সম্পাদক সেবুল মিয়া।

উল্লেখ্য, ১৯৮১ সালের ১৬ মে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা দীর্ঘ প্রবাস জীবন শেষে দেশে ফিরে আসেন। তিনি ঐদিন বিকেল ৪টায় ইন্ডিয়ান এয়ারলাইন্সের ৭৩৭ বোয়িং বিমান যোগে ভারতের রাজধানী দিল্লী থেকে কলকাতা হয়ে ঢাকাস্থ তৎকালীন কুর্মিটোলা বিমানবন্দরে অবতরণ করেন। এর আগে একই বছরের ১৪, ১৫ ও ১৬ ফেব্রুয়ারী অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের জাতীয় কাউন্সিল অধিবেশনে শেখ হাসিনার অনুপস্থিতিতেই তাকে দলের সভানেত্রী মনোনীত করা হয়। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট সপরিবারে বঙ্গবন্ধুকে হত্যার সময় শেখ হাসিনা ও তার ছোট বোন শেখ রেহানা প্রবাসে অবস্থান করছিলেন।

নিউইয়র্ক স্টেট যুবলীগের অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন যুক্তরাষ্ট্র যুবলীগের সহ-সভাপতি বাহার উদ্দিন, সাংগঠনিক সম্পাদক জামাল আহমেদ জামাল, প্রচার সম্পাদক গণেশ কীর্তনিয়া, কার্যকরী সদস্য সারোয়ার হোসেন, নিউইয়র্ক ষ্টেট যুবলীগের সহ সভাপতি রিন্টু লাল দাস, যুগ্ম সম্পাদক রহিমুজ্জামান সুমন, কানেকটিকাট যুবলীগের সভাপতি হুমায়ুন আহমেদ চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক ওয়েছ আহমেদ চৌধুরী, সিটি যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আমিনুল হোসেন, কুইন্স বরো যুবলীগের সভাপতি জামাল হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক সাহিদ সিরাজ সৌরভ, ব্রুকলীন যুবলীগের সভাপতি মোশাররফ হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক লাবলু, ম্যানহাটান যুবলীগের সভাপতি মনির হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক কবীর হোসেন, ব্রঙ্কস যুবলীগের সভাপতি কামাল লোহানী ও সাধারণ সম্পাদক রেজা আব্দুল্লাহ প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে মিসবাহ আহমেদ বলেন, ‘জাতির জনক’ বঙ্গবন্ধু কণ্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন ‘সোনার বাংলা’ প্রতিষ্ঠার সংগ্রাম চালিয়ে যাচ্ছেন। তিনি ক্ষমতায় আসার পর দেশ এগিয়ে যাচ্ছে, মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। আওয়ামী লীগ সরকারের উন্নয়নের ধারা অব্যাহত থাকলে প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত ২০২১ সালের মধ্যেই বাংলাদেশ বিশ্বের বুকে একটি মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হবে।

নিউইয়র্ক কনস্যুলেটে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি ভাংচুরের ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়ে তিনি বলেন, এই ঘটনার সাথে যে বা যারা জড়িত তাদেরকে চিহ্নিত করে অবিলম্বে তাদের বিরুদ্ধে কনস্যুলেটকে আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে হবে। তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্র যুবলীগ নিয়ে কোন ষড়যন্ত্র সহ্য করা হবে না। ষড়যন্ত্র করে যুবলীগের ঐক্য নষ্ট করা যাবে না। যুবলীগ ঐক্যবদ্ধ আছে। আওয়ামী লীগ নামধারী কতিপয় নেতা যারা খন্দকার মোস্তাকের প্রেতাত্মা তারা যুবলীগ নিয়ে ছিনিমিনি খেলা খেলছে। তাদেরকে হুশিয়ার করে যুবলীগ সভাপতি মিসবাহ আহমেদ বলেন, এই ছিনিমিনি ঐক্যবদ্ধভাবে মোকাবেলা করা হবে।

নিউইয়র্ক স্টেট যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক সেবুল মিয়া ইউএন’কে জানান, অনুষ্ঠানে নিউইয়র্ক প্রবাসী, কুমিল্লা জেলার দাউদকান্দি থানা জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের প্রচার সম্পাদক জাকির হোসেন বঙ্গবন্ধুর আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করার প্রত্যয়ে যুক্তরাষ্ট্র যুবলীগে যোগদান করেন।

You Might Also Like