এভারেষ্টে তুষার ধসে মারা গেলেন ১২ জন

মাউন্ট এভারেষ্টের ঢালুতে বড় ধরণের তুষার ধসে অন্তত ১২ জন গাইড নিহত হয়েছেন বলে জানিয়েছেন নেপালের কর্মকর্তারা।

এটিকে এভারেষ্টের এ যাবত কালের সবচেয়ে মর্মান্তিক দুর্ঘটনা বলে মনে করা হচ্ছে।

এভারেষ্টের ‘বেজ ক্যাম্প’ থেকে প্রায় পাঁচ হাজার আটশো মিটার উচ্চতায় ‘পপকর্ণ ফিল্ড’ বলে পরিচিত একটি জায়গায় স্থানীয় সময় সকাল পৌণে সাতটায় এই দুর্ঘটনা ঘটে।

নেপালের পর্যটন মন্ত্রণালয়ের একজন মুখপাত্র বিবিসিকে জানিয়েছেন, তুষার ধসে কিছু পর্বতারাহীও নিখোঁজ হয়েছেন। এদের কয়েকজনকে উদ্ধার করা হয়েছে।

নিহত শেরপা গাইডরা পর্বতারোহীদের জন্য দড়ি বাঁধতে এভারেষ্টের ঢাল বেয়ে উপরে উঠছিলেন। সেসময় তুষার ধসের কবলে পড়েন তারা।

নিহত এবং আহতদের পরিচয় এখনো প্রকাশ করা হয়নি।

সংবাদদাতারা বলছেন, পর্বতারোহীদের এভারেষ্টে আরোহনের আয়োজন করতে গিয়ে শেরপারা কি মারাত্মক সব ঝুঁকি নেন, এই দুর্ঘটনার মাধ্যমে সেটি নতুন করে সামনে এসেছে।

এপ্রিল মাসকে এভারেষ্টে আরোহনের জন্য আদর্শ সময় বলে মনে করা হয়। শত শত পর্বতারোহী এই সময়টিতে এভারেষ্টের চূড়া জয়ের চেষ্টা করেন।

১৯৫৩ সালে এভারেষ্টের চূড়ায় প্রথম উঠেছিলেন স্যার এডমান্ড হিলারি এবং তেনজিং নোরগে। এর পর তিন হাজারের বেশি মানুষ এ পর্যন্ত এভারেষ্টের চূড়ায় উঠেছেন।

বহু মানুষ এভারেষ্টে উঠতে গিয়ে প্রাণ হারিয়েছেন।

১৯৯৬ সালে এক ঝড়ের কবলে পড়ে এভারেষ্টে নিহত হন আট জন পর্বতারোহী।

You Might Also Like