মানুষের মল দিয়ে চলছে বাস!

ইংল্যান্ডে জল সরবরাহ ও সুয়ারেজ সেবা প্রতিষ্ঠান ওয়েসেক্স ওয়াটার (Wessex Water) এমন একটি বাস তৈরি করেছে যার জ্বালানি মানুষের মল!

এটিকে নবায়নযোগ্য শক্তিচালিত এবং পরিবেশবান্ধব ‍পৃথিবীর একমাত্র যাত্রীবাহী বাস হিসেবে দাবি করা হচ্ছে।

বাসটি মূলত জৈব মিথেন গ্যাস চালিত ইঞ্জিনে চলে। আর এ মিথেন গ্যাস উৎপাদন করা হয় মানুষের মল (বর্জ্য) থেকে।

সম্প্রতি কোম্পানিটি এই বাস ব্রিস্টলের রাস্তায় পরীক্ষামূলক নামিয়েছে। মানুষের বর্জ্যকে আরো বিস্তার কাজে ব্যবহার উপযোগী করার বড় পরিকল্পনার অংশ হিসেবেই তাদের এ উদ্যোগ।

ওয়েসেক্স ওয়াটার জানিয়েছে, প্রায় সাত বছরের প্রচেষ্টার ফসল এই বাস। তারা বহু দিন থেকেই এরকম একটি প্রকল্প নিয়ে কাজ করছে। বর্তমানে তারা এমন একটি ব্যবস্থার উদ্ভাবন করেছে যার মাধ্যমে মানুষের মল থেকে জৈব মিথেন গ্যাস উৎপন্ন করা হয় এবং সে গ্যাস সাড়ে ৮ হাজার বসতবাড়ির প্রয়োজন মেটাতে যথেষ্ট। তার সঙ্গে একটি যাত্রীবাহী বাসের জ্বালানি চাহিদা মেটাতেও সক্ষম।

তাদের GENeco নামে ওই প্রকল্পের মহাব্যবস্থাপক মোহাম্মদ সাদিক এ ব্যাপারে বলেন, ‘যুক্তরাজ্যের শহরগুলোর বায়ু গুণগত মান উন্নয়নে গ্যাসচালিত যানবাহনের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে। কিন্তু এই জৈব বাস আরো বেশি ভূমিকা রাখবে কারণ এর জ্বালানি হবে এখানকার অধিবাসীদেরই মল থেকে। তারা এই বাসের যাত্রীও বটে।’

এই পদ্ধতি শুধু যে টেকসই জ্বালানি ব্যবস্থাই উপহার দেবে না জীবাশ্ম জ্বালানির ওপর নির্ভরতাও কমাবে বলে মনে করেন তিনি।

You Might Also Like