ইসরাইলি সেনা নিহত হওয়ার পর টনক নড়ল জাতিসংঘের

জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ  অধিকৃত ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকায় ক্রমবর্ধমান হতাহতের ঘটনায় ‘গভীর উদ্বেগ’ প্রকাশ করেছে এবং অবিলম্বে যুদ্ধ বন্ধের আহ্বান জানিয়েছে। তবে নিরস্ত্র ফিলিস্তিনি নারী ও শিশুদের ওপর ইসরাইলি পাশবিক আগ্রাসনের নিন্দা জানায় নি এ পরিষদ।

গাজায় ইহুদিবাদী ইসরাইলের চলমান আগ্রাসনের বিষয়ে আলোচনার জন্য জর্দানের আহ্বানে রোববার রাতে বৈঠকে বসে নিরাপত্তা পরিষদ। গাজায় গত দু’সপ্তাহের  ইসরাইলি আগ্রাসনে অন্তত ৫১০ নিরীহ ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন।  সেইসঙ্গে ফিলিস্তিনি প্রতিরোধ আন্দোলন হামাস ৩২ ইসরাইলি সেনাকে হত্যা করেছে। তেল আবিব অবশ্য তার ১৮ সেনার নিহত হওয়ার কথা স্বীকার করেছে।

১৪ দিন আগে অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকায় ইসরাইলি আগ্রাসন শুরু হলেও ইহুদিবাদী সেনাদের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হওয়ার পরই কেবল জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ জরুরি বৈঠকে বসল।

বর্তমানে নিরাপত্তা পরিষদের ভারপ্রাপ্ত সভাপতির দায়িত্ব পালন করছে রুয়ান্ডা। জাতিসংঘে নিযুক্ত দেশটির রাষ্ট্রদূত ইউজেন গাসানা বলেছেন, গাজায় ক্রমবর্ধমান হতাহতের ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে নিরাপত্তা পরিষদ। সেইসঙ্গে বেসামরিক ফিলিস্তিনিদের রক্ষা এবং আন্তর্জাতিক মানবাধিকারের প্রতি সম্মান জানানোরও আহ্বান জানিয়েছে এ পরিষদ।

এদিকে, গাজায় ভয়াবহ আগ্রাসন চালানোর জন্য তেল আবিবের নিন্দা না জানানোয় গভীর হতাশা ব্যক্ত করেছেন জাতিসংঘে নিযুক্ত ফিলিস্তিনি রাষ্ট্রদূত রিয়াদ মানসুর। তিনি বলেছেন, ফিলিস্তিনি জনগোষ্ঠীর বিরুদ্ধে যে আগ্রাসন চলছে নিরাপত্তা পরিষদ তার নিন্দা জানিয়ে প্রস্তাব গ্রহণ করবে বলে আশা করা হয়েছিল।

You Might Also Like