সিরিয়ার বিয়ে বাড়িতে দায়েশের আত্মঘাতী হামলায় নিহত ২২

সিরিয়ার উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় হাসাকা প্রদেশের একটি বিয়ে বাড়িতে উগ্র তাকফিরি জঙ্গি গোষ্ঠী দায়েশের বোমা হামলায় অন্তত ২২ বেসামরিক ব্যক্তি নিহত হয়েছে। নিহতদের মধ্যে অনেক নারী ও শিশু রয়েছে।

লন্ডন-ভিত্তিক কথিত মানবাধিকার সংস্থা সিরিয়ান অবজারভেটরি ফর হিউম্যান রাইটসের পরিচালক রামি আব্দের রহমান বলেছেন, প্রদেশের ‘তাল তাওয়িল’ গ্রামের একটি বিয়ে বাড়িতে একজন আত্মঘাতী ব্যক্তি বোমা হামলা চালালে এসব হতভাগ্য মানুষ নিহত হয়। ওই বাড়িতে সিরিয়ান ডেমোক্র্যাটিক ফোর্স বা এসডিএফ’র এক সদস্যের বিয়ে হচ্ছিল।

আরব, অ্যাসিরিয়, আর্মেনিয়, তুর্কমেন ও কুর্দি যোদ্ধাদের নিয়ে দায়েশ-বিরোধী এসডিএফ গ্রুপ তৈরি হয়েছে।

পাশবিক এ হত্যাকাণ্ডের দায় তাৎক্ষণিকভাবে স্বীকার করেছে দায়েশ। তারা ‘আমাক’ নিউজ এজেন্সির মাধ্যমে ঘোষণা করেছে, কুর্দিদের এক সমাবেশে হামলা চালিয়েছে তারা।

হামলায় বর নিহত হয়েছেন বলে প্রাথমিকভাবে সিরিয়ান অবজারভেটরি খবর দিলেও পরে জানা গেছে, হামলা থেকে বর এবং কনে দু’জনই অক্ষত অবস্থায় প্রাণে রক্ষা পেয়েছেন।

জাতিসংঘের হিসাব মতে, সিরিয়ায় বিদেশি মদদপুষ্ট সহিংসতায় এ পর্যন্ত চার লাখের বেশি মানুষ নিহত হয়েছে। ২০১১ সালের মার্চ মাসে এ সহিংসতা শুরু হয়েছিল।#

পার্সটুডে