সাক্কুই কুমিল্লা সিটি করপোরেশনে মেয়র নির্বাচিত হলেন

বাংলাদেশের কুমিল্লা সিটি করপোরেশন (কুসিক) নির্বাচনের বেসরকারি ফলাফলে বিএনপি প্রার্থী ও বর্তমান মেয়র মনিরুল হক সাক্কু বিজয়ী হয়েছেন। তিনি আওয়ামী লীগের প্রার্থী আঞ্জুম সুলতানা সীমাকে ১১ হাজার ৮৫ ভোটের ব্যবধানে পরাজিত করেছেন।
আজ (বৃহস্পতিবার) রাত ৯টার পর নির্বাচনের বেসরকারি ফলাফল ঘোষণা করেন রিটার্নিং অফিসার রকিব উদ্দিন মণ্ডল। মোট ১০৩টির মধ্যে ঘোষিত ১০১টি কেন্দ্রে ধানের শীষ প্রতীকে বিএনপি প্রার্থী পেয়েছেন ৬৮,৯৪৮ ভোট। আর নৌকা প্রতীকে আওয়ামী লীগ প্রার্থী পেয়েছেন ৫৭,৮৬৩ ভোট।
অনিয়ম ও সহিংসতার কারণে ১০৩টি কেন্দ্রের মধ্যে দুটি কেন্দ্রের ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হয়েছে। স্থগিত দুটি কেন্দ্রের ভোট প্রায় ৫ হাজার।
এর আগে বৃহস্পতিবার সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত একটানা ভোট গ্রহণ চলে। এরপর কেন্দ্রে কেন্দ্রে শুরু হয় ভোট গণনা। কেন্দ্র থেকে পাঠানো ফলাফল কুমিল্লা টাউন হলে রিটার্নিং কর্মকর্তার নিয়ন্ত্রণ কক্ষে পৌঁছানোর পর সেখান থেকে তা একীভূত আকারে ফলাফল ঘোষণা করা হয়। কুমিল্লা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে দুই লাখেরও বেশি ভোটার ছিল।
২০১১ সালে দুটি পৌরসভাকে এক করে কুমিল্লা সিটি করপোরেশন ঘোষণা করা হয়। এর পরের বছরই অনুষ্ঠিত হয় সিটির প্রথম নির্বাচন। ওই নির্বাচনে মনিরুল হক সাক্কু আওয়ামী লীগ সমর্থিত আফজল খানকে পরাজিত করেন। মনিরুল হক সাক্কু এবার আফজল খানের মেয়ে ও সিটির সাবেক কাউন্সিলর আঞ্জুম সুলতানা সীমাকে পরাজিত করে মেয়র নির্বাচিত হলেন। তিনি বিলুপ্ত পৌরসভার প্যানেল চেয়ারম্যান ছিলেন। বিলুপ্ত পৌরসভারও চেয়ারম্যান ছিলেন মনিরুল হক সাক্কু।