রূপগঞ্জে যুবদলের র‌্যালিতে ছাত্রলীগের হামলা, আহত ২৫

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে যুবদলের র‌্যালিতে ছাত্রলীগ ও যুবলীগের হামলাকে কেন্দ্র করে দুপক্ষের সংঘর্ষে কমপক্ষে ২৫ জন আহত হয়েছে। এ সময় কয়েকটি গাড়ি ভাঙচুর করা হয়।

বুধবার দুপুরে উপজেলার গাউছিয়া এলাকায় এ হামলা ও ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে।

দফায় দফায় হামলার ঘটনায় দু’পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে।

যুবদলের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে কেন্দ্রীয় যুবদল নেতা মোস্তাফিজুর রহমান দীপু ভূঁইয়ার নেতৃত্বে দুপুরে গোলাকান্দাইল এলাকায় একটি র‌্যালি বের হয়। র‌্যালি শেষে তারা দীপু ভূঁইয়ার বাড়িতে অবস্থান নেন। এ সময় স্থানীয় ছাত্রলীগ ও যুবলীগের নেতা-কর্মীরা হামলা চালিয়ে মারধর ও ভাঙচুর করে। এতে দুপক্ষের সংঘর্ষে অন্তত ২৫ জন আহত হয়। এ সময় বাড়ির ভেতরে থাকা দুটি জিপ, ১০-১৫টি মোটরসাইকেল ও বাড়ির আসবাবপত্র ভাঙচুর করা হয়।

হামলায় অর্ধশত নেতাকর্মী আহত হয়েছে বলে অভিযোগ করে রূপগঞ্জ থানা যুবদলের সভাপতি গোলাম ফারুক খোকন বলেন, আহতদের ঢাকায় বিভিন্ন হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

এ ঘটনার পর স্থানীয় সংসদ সদস্য গাজী গোলাম দস্তগীর পুলিশ প্রশাসনকে সঙ্গে নিয়ে মোস্তাফিজুর রহমান দীপু ভূঁইয়ার বাড়িতে গিয়ে তার সঙ্গে দেখা করে দুঃখ প্রকাশ করেন।

তিনি যুবদলের অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, যুবদলের র‌্যালি থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে কটূক্তি করে শ্লোগান দেওয়া হলে বিক্ষুব্ধ জনতা তাদের ধাওয়া দিয়ে রাস্তা থেকে নামিয়ে দেয়।

তিনি বলেন, আমি শান্তিপূর্ণ রাজনীতিতে বিশ্বাসী। উত্তেজনাবশত এই অনাকাক্সিক্ষত ঘটনা ঘটেছে। রাজনীতিতে আমি কোন দ্বন্দ্ব চাই না। দ্বন্দ্ব মেটাতে আমি এখানে এসেছি।