রামপুরায় দুই সন্তান হত্যা : মায়ের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল

রাজধানীর রামপুরার বনশ্রীতে দুই শিশু সন্তানকে হত্যার ঘটনায় দায়ের করা মামলায় মা মাহফুজা মালেক জেসমিনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র গ্রহণ করেছেন আদালত।

সোমবার ঢাকা মহানগর হাকিম সত্যব্রত সিকদার এ অভিযোগপত্র আমলে নেন।

এর আগে গত ১৬ জুন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) পরিদর্শক লোকমান হেকিম অভিযোগপত্র পেশ করেন। বিনা প্ররোচনায় ঠা-া মাথার খুনি হিসাবে জেসমিনের বিরুদ্ধে এতে অভিযোগ আনা হয়।

ছেলে ও মেয়েকে হত্যার অভিযোগে জেসমিনের স্বামী আমান উল্লাহ বাদী হয়ে গত ৩ মার্চ তার স্ত্রীকে একমাত্র আসামি করে রামপুরা থানায় এই হত্যা মামলা দায়ের করেন। ওইদিনই তাকে আটক করে পুলিশ। এরপর গত ৪ ও ৯ মার্চ দুই দফায় পাঁচ দিন করে তার দশ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।

১৩ মার্চ মা মাহফুজা দুই সন্তানকে হত্যার দায় স্বীকার করে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন। স্বীকারোক্তিতে মাহফুজা বলেন, তিনি তার দুই সন্তানকে নিজ হাতে হত্যা করেছেন। ছেলেমেয়েদের শিক্ষা জীবন এবং ভবিষ্যৎ নিয়ে হতাশায় ভোগার কারণেই তিনি তাদেরকে খুন করেন বলে উল্লেখ করেন।

প্রসঙ্গত, বনশ্রীর ৪ নম্বর রোডের ৯ নম্বর বাসায় গত ২৯ ফেব্রুয়ারি রাতে দুই ভাইবোনের রহস্যজনক মৃত্যু হয়। ঘটনার পর স্বজনেরা দাবি করেন, রেস্তোরাঁর খাবার খেয়ে দুই শিশুর মৃত্যু হয়েছে। ময়নাতদন্তের পর চিকিৎসকেরা জানান, শিশু দুটিকে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে। এরপর লাশ ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে রেখে তাদের মা- বাবা জামালপুর শহরের ইকবালপুরে তাদের বাড়িতে চলে যান। পরদিন লাশের ময়নাতদন্তে দুই শিশুকে শ্বাসরোধে হত্যার আলামত পান চিকিৎসকরা।

নুসরাত ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের (প্রধান শাখা) পঞ্চম শ্রেণিতে পড়ত। হলি ক্রিসেন্ট (ইন্টারন্যাশনাল) স্কুল অ্যান্ড কলেজের নার্সারিতে পড়ত আলভী।