মানবতাবিরোধী অপরাধে পটুয়াখালীর পাঁচজনের মৃত্যুদণ্ড

একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধের সময় মানবতাবিরোধী অপরাধে জড়িত থাকার অভিযোগে পটুয়াখালী জেলার পাঁচ আসামির ফাঁসির রায় দিয়েছেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল (আইসিটি)।

সোমবার বিচারপতি মো. শাহিনুর ইসলামের নেতৃত্বাধীন তিন সদস্যের ট্রাইব্যুনাল এ রায় দেন।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- সদর উপজেলার বিভিন্ন গ্রামের বাসিন্দা ইসহাক শিকদার, সোলায়মান মৃধা, আব্দুস সাত্তার পেদা, আব্দুল গণি হাওলাদার এবং আউয়াল ওরফে মৌলভী আব্দুল আউয়াল।

আসামিদের বিরদ্ধে দায়ের করা পাঁচটি যুদ্ধাপরাধের মধ্যে হত্যা ও ধর্ষণের অভিযোগ ট্রাইব্যুনালে প্রমাণিত হয়েছে।

এর আগে রবিবার রায়ের জন্য আজকের দিন ধার্য করা হয়।

গত ৩০ মে উভয়পক্ষের যুক্তিতর্ক শেষে মামলাটি রায় ঘোষণার জন্য অপেক্ষমাণ রাখেন ট্রাইব্যুনাল।

১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধের সময় পটুয়াখালী জেলায় মানবতাবিরোধী অপরাধে জড়িত থাকার অভিযোগে ওই জেলার পাঁচজনের বিরুদ্ধে গত বছরের ১৯ নভেম্বর চার্জ দাখিল করেন ট্রাইব্যুনাল।

এর আগে ২০১৫ সালের সেপ্টেম্বরে মুক্তিযুদ্ধকালে হত্যা, ধর্ষণ, লুণ্ঠন, অগ্নিসংযোগ ও নির্যাতনে অভিযোগে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির পর পটুয়াখালীর বিভিন্ন এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

২০১৭ সালের ৮ মার্চ ১৫ বীরাঙ্গনা নারীকে ধর্ষণ, ১৭ নারীকে নির্যাতন ও ১৫টি বাড়িঘর ভাঙচুরের অভিযোগ গঠন করা হয়।