মাতৃত্বের স্বাদ নিতে চান কারিনা

সন্তান নিতে অনীহা প্রকাশ করে গত বছর কারিনা কাপুর বলেছিলেন, ‘কে জানে, আমি হয়তো কখনোই মা হব না। আর যদি মা না হওয়ার সিদ্ধান্তই নিই, তবে অবাক হওয়ার কিছু নেই। সাইফের দুটি সন্তান আছে। ওরা আমারও সন্তান। সাইফ এবং আমি আদর্শ ভারতীয় দম্পতি নই যাঁদের বিয়ের একমাত্র উদ্দেশ্য হলো সন্তান জন্ম দেওয়া।’ কিন্তু সম্প্রতি মা হওয়ার আগ্রহ প্রকাশ করেছেন পতৌদির নবাব সাইফ আলী খানের স্ত্রী ‘হিরোইন’ তারকা কারিনা কাপুর খান।

পাঁচ বছর এক ছাদের নিচে বসবাসের পর ২০১২ সালের ১৬ অক্টোবর বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করেন সাইফ-কারিনা। এই জুটির ভক্তদের আগ্রহের কথা বিবেচনায় নিয়ে সুযোগ পেলেই সাইফ-কারিনার ব্যক্তিগত বিষয় নিয়ে নানা প্রশ্ন ছুড়ে দেন সংবাদকর্মীরা। বিশেষ করে কবে মা হচ্ছেন—বহুবার এই প্রশ্নের সম্মুখীন হতে হয়েছে ৩৪ বছর বয়সী এ তারকা অভিনেত্রীকে। তিনি বরাবরই ব্যক্তিগত এ প্রশ্নকে এড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেছেন। মা হওয়ার কোনো রকম পরিকল্পনা নেই বলেও জানিয়েছেন তিনি। তবে সম্প্রতি একই প্রশ্নের জবাবে ভিন্ন জবাব এসেছে কারিনার মুখ থেকে। অবশেষে মাতৃত্বের স্বাদ নিতে চান বলেই জানিয়েছেন তিনি।

সম্প্রতি মুম্বাইয়ে আয়োজিত একটি সংবাদ সম্মেলনে সংবাদকর্মীদের সঙ্গে আলাপচারিতার সময় কারিনা বলেন, ‘আমি মা হতে চাই। তবে এখনো সেই সময় আসেনি। এই মুহূর্তে আমি মা হওয়ার জন্য প্রস্তুত নই। সাইফ এবং আমি দুজনই একে অন্যকে আগের চেয়ে অনেক বেশি সময় দিচ্ছি। পাশাপাশি আমরা প্রচুর কাজও করছি। কাজ নিয়ে প্রচণ্ড ব্যস্ততার মধ্য দিয়ে আমাদের সময় কেটে যাচ্ছে।’ এক খবরে এমনটিই জানিয়েছে ওয়ান ইন্ডিয়া।

শিগগির সালমান খানের সঙ্গে বজরঙ্গি ভাইজান ছবিতে জুটি বেঁধে অভিনয় করতে যাচ্ছেন কারিনা। তিনি সালমানের সঙ্গে আবার কাজের সুযোগ পেয়ে দারুণ উচ্ছ্বসিত। কারিনা বলেন, ‘জীবনের এই পর্যায়ে এসে এখন আমি সেসব ছবিতেই অভিনয় করতে চাই, যা আমাকে আনন্দ দেবে। শিগগির সালমানের সঙ্গে একটি ছবির শুটিং শুরু করতে যাচ্ছি। আমার বিশ্বাস, চলচ্চিত্রপ্রেমীদের দৃষ্টি আকর্ষণ করবে এই ছবিটি।