‘বিএনপির আন্দোলন করার সামর্থ্য নেই’

বিএনপির আন্দোলনকরার মতো শক্তি সামর্থ্য ও সাহস নেই দাবী করে  সড়ক ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিএনপির আন্দোলন প্রেস ব্রেফিং আর ভাষনের মধ্যেই সীমাবদ্ধ। গত ৬ বছরে ১২টি ঈদ পেরিয়ে গেলেও তাদের আন্দোলন মানুষ দেখেনি।

শনিবার দুপুরে রংপুর  মহানগরীতে চলমান চারলেন সড়ক নির্মাণ কাজ পরিদর্শনে এসে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে তিনি এসব কথা বলেন। মন্ত্রী পায়ে হেটে নগরীর পায়রা চত্ত্বর থেকে জাহাজ কোম্পানী মোড় পর্যন্ত চারলেন সড়কের কাজ পরিদর্শন করেন।

এসময় তিনি সম্প্রসারণ কাজে ধীরগতিতে অসন্তোষ প্রকাশে করে বলেন, রংপুরে আসার আমার কোনো শিডিউল ছিলো না। তবুও এসেছি। আমি দেখতে চাই রংপুরে রাস্তার কি কাজ হচ্ছে। কিন্তু আমি সরি।

তিনি সিটি মেয়রকে উদ্দেশ্য করে বলেন, আগামী বছরের জুনের মধ্যে চারলেনের কাজ সম্পূর্ণ করার ব্যবস্থা করুন। আপনি পায়রা চত্ত্বর থেকে শাপলা চত্ত্বর পর্যন্ত গোল্ডেন টাওয়ার, আহার ভবন, শাহজামাল মার্কেট, এ্যাড. গণি ভবনসহ তেরটি ভবন দ্রুত অপসারণ করুন। এসব ভবনের কারণেই রাস্তার কাজে ব্যঘাত হচ্ছে।  চিন্থিত ভবন অপসারণের জন্য মেয়র ঝন্টুকে তিনি রোববার জরুরী সভার করার পরামর্শ দেন।

পরিদর্শনের সময় মন্ত্রীর সাথে ছিলেন সিটি মেয়র সরফুদ্দিন আহমেদ ঝন্টু, ডিসি  ফরিদ আহাম্মদ, পুলিশ সুপার আব্দুর রাজ্জাক পিপিএম, জেলা পরিষদ প্রশাসক ও জেলা আওয়ামী সভাপতি মমতাজ উদ্দিন আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট রেজাউল করিম রাজু, মহানগর আওয়ামীলীগ সভাপতি শফিয়ার রহমান সফি, সেক্রেটারী তুষার কান্তি মন্ডল, জেলা দপ্তর সম্পাদক তৌহিদুর রহমান টুটুল, জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি মেহেদী হাসান রনি প্রমুখ।

মন্ত্রী সাংবাদিকদের আরেক প্রশ্নের জবাবে বলেন, আন্দোলনের অধিকার সবারই আছে। কিন্তু অধিকারের নামে কেউ যদি গাছ কাটে, সড়ক-সেতু ও রেলে আগুন দেয়, পুলিশসহ সাধারণ মানুষকে হত্যা এবং জানমালের নিরপত্তা বিঘিœত করে তখন সরকারকো তো ব্যবস্থা নিতেই হবে।