বিএনপির অনেক নেতাই মনক্ষুন্ন হবেন: রফিকুল

বিএনপির আন্দোলন সফল হয়েছে- নেতাদের এই বক্তব্যের সাথে দ্বিমত পোষণ করে দলের অন্যতম স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়া বলেন, গত ২৯ ডিসেম্বর ও ৫ জানুয়ারি নির্বাচন বাতিলের দাবিতে বিএনপি যে কর্মসূচি ঘোষণা করেছিল তা ব্যর্থ হয়েছে। এই কথা আমাদেরকে স্বীকার করতে হবে। কিন্তু বিএনপির অনেক নেতাই তা স্বীকার করেন না। তবে আন্দোলন কেন ব্যর্থ হয়েছে ওই বিষয়ে আমি কিছু বলবো না। কারণ ওই বিষয় বললে বিএনপির অনেক নেতাই আমার উপর মনক্ষুন্ন হবেন।

শনিবার সকালে জাতীয় প্রেসক্লাব ভিআইপি লাউঞ্জে নাগরিক ফোরাম আয়োজিত এক গোলটেবিল আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।

‘গণতন্ত্র পুনর্বহাল-দ্রুত নির্বাচন প্রয়োজন’ শীর্ষক গোলটেবিল আলোচনা সভায় রফিকুল ইসলাম মিয়া বলেন, সরকার বিরোধী আন্দোলনের কোন বিকল্প নেই। ক্ষমতাসীনদের শত নির্যাতন ও জুলুম সহ্য করেও আন্দোলনকে সফল করতে হবে। একই সাথে আন্দোলনের সকল প্রস্তুতি নিয়ে রাজপথে ঝাঁপিয়ে পড়তে হবে।

শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রলীগের তা-বের কথা উল্লেখ করে বিএনপির এই শীর্ষ নেতা বলেন, শেখ হাসিনা ছাত্রলীগকে মানুষ হত্যা করার জন্য উৎসাহিত করেন। কারণ শেখ হাসিনা চান আওয়ামী লীগ আর তিনি ছাড়া বাংলাদেশে আর কেউ থাকবে না।

তিনি অভিযোগ করেন, দেশে কেউ সম্মান নিয়ে বেঁচে থাকার অধিকার পাচ্ছে না। তাই অনেক শত কষ্ট সহ্য করে বিদেশ পারি দিচ্ছে।

আয়োজক সংগঠনের চেয়ারম্যান আবদুল্লাহিল মাসুদের সভাপতিত্বে গোলটেবিল আলোচনা সভায় আরো বক্তব্য রাখেন জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টির সভাপতি শফিউল আলম প্রধান, বিএনপির চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা শামসুজ্জামান দুদু প্রমুখ।