বারাক ওবামার পরে ট্রাম্পের ভাষণেও শাহরুখ

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ভারত সফরে এসে ‘নমস্তে ট্রাম্প’ নামের ইভেন্টে ভাষণ দিলেন। সেখানে তাঁর বক্তব্যে উঠে এল বলিউডের প্রশংসা ও দুটো ছবির নাম—শাহরুখ খান ও কাজল অভিনীত ‘দিলওয়ালে দুলহানিয়া লে যায়েঙ্গে’ ও অমিতাভ বচ্চন ও ধর্মেন্দ্র অভিনীত ‘শোলে’। এই ঘটনায় শাহরুখ–ভক্তরা বেজায় খুশি। তাঁরা বলছেন, সবার ওপরে শাহরুখ ভাই, তাহার ওপরে নাই! সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে চলছে হ্যাশট্যাগ, ‘শাহরুখ জ্যায়সা কো-ই নেহি’।

যদিও ট্রাম্প এত ছবির লম্বা নাম হিন্দিতে উচ্চারণের ঝুঁকি নেননি। তিনি সহজভাবে বলেছেন সংক্ষিপ্ত নাম, ‘ডিডিএলজে’। ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া ট্রাম্প ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বসেছিলেন সামনে। পেছনে চারপাশে ছিল অসংখ্য মানুষ। ১৫ সেকেন্ডের ভাইরাল হওয়া ওই ভিডিওতে দেখা যায়, ট্রাম্পের মুখে এই দুটো ছবির নাম শুনে সবাই চিৎকার করে হাততালি দেন।

ট্রাম্প বলেন, ‘ভারত সেই দেশ, যারা বছরে ২০০০ চলচ্চিত্র নির্মাণ করে! বলিউড অগণিত প্রতিভাবান মানুষের হাতে গড়া। বিশ্বের সব মানুষ বলিউডের সিনেমা দেখে আনন্দ পায়। এর ভেতর “ডিডিএলজে” আর “শোলে”-এর মতো ছবি উল্লেখযোগ্য।’ এ ছাড়া ট্রাম্প পাঞ্জাবের ঐতিহ্যবাহী নাচ ‘ভাংরা’র কথাও উল্লেখ করেন।

শাহরুখ খানের ভক্তরা এই ভিডিও ছড়িয়ে দেন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। বলা যায়, এটি এখন ভাইরাল। ক্যাপশনে তাঁরা লেখেন শাহরুখের প্রতি তাঁদের ভালোবাসার কথা। একজন ট্রাম্পের বক্তব্য উল্লেখ করে লিখেছেন, ডিডিএলজে দেখে মানুষ খুবই আনন্দ পেয়েছে। জি হ্যাঁ, বলিউডের পরিচয় শাহরুখের সিনেমায়।

আরেকজন আবার খানিকটা পেছনে ফিরে গিয়ে লিখেছেন, ‘কেবল ট্রাম্প নন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামাও ভারতে এসে শাহরুখ খানের নাম উল্লেখ করেন। এমনকি শাহরুখের “ডিডিএলজে” সিনেমা থেকে হিন্দিতে সংলাপও আওড়ান, ‘সেনোরিতা, বারে বারে দেশো মে…’ অবশ্য ‘অ্যায়সি ছোটি ছোটি বাতে হোতি র‍্যাহতি হে…’ এইটুকু বলে আর শেষ করতে পারেননি ওবামা। প্রথম অংশ বলে বলেছেন, ‘ইউ নো হোয়্যাট আই মিন’। দর্শক সেবার চিৎকার করে বাকিটুকু বলে দিয়েছিলেন।

এই ঘটনার পর ভক্তরা বলছেন শাহরুখের মতো এত বড় ‘গ্লোবাল’ তারকা আর হয় না।

মুম্বাইয়ের মোতেরা স্টেডিয়ামে ভারতীয় সংস্কৃতির প্রশংসা করে ট্রাম্প বক্তব্য দেন। এর আগে তিনি আয়ুষ্মান খুরানার সর্বশেষ ছবি ‘শুভ মঙ্গল জ্যায়দা সাবধান’ সিনেমার একটা পোস্টে ‘গ্রেট’ মন্তব্য করেছিলেন। ভারতে আসার আগে একটা ভিডিওতে তিনি ভারতের ‘গ্রেট বন্ধুদের’ সঙ্গে সময় কাটানোর জন্য মুখিয়ে আছেন বলে বার্তা দেন। সেখানে গ্রাফিকসে ট্রাম্পের চেহারা ‘বাহুবলী’ সিনেমার ‘বাহুবলী’র আদলে বানানো হয়েছিল।