‘বাংলাদেশ-ভারতের সম্পর্ক অনন্য উচ্চতায় পৌঁছেছে’

‘মুক্তিযুদ্ধের পর থেকেই বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যে সুসম্পর্ক। দুই দেশের সম্পর্ক এখন অনন্য উচ্চতায় পৌঁছেছে। আমরা বিশ্বাস করি, এ সম্পর্ক আগামীতে আরো উজ্জ্বল হবে।’

সোমবার (২৭ জুলাই) দুপুরে রেল ভবনে ভারত সরকারের পক্ষ থেকে বাংলাদেশের কাছে ১০টি রেল ইঞ্জিন হস্তান্তর উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন এসব কথা বলেন।

রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন, পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন এবং ভারতের রেলমন্ত্রী পীযূষ গোয়েল ভার্চুয়ালি এ হস্তান্তর প্রক্রিয়ায় অংশ নেন। ভিডিও কনফারেন্সের মাধ‌্যমে অনুষ্ঠানে আরো যুক্ত ছিলেন ভারতে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার মুহম্মদ ইমরান, ভারতের পররাষ্ট্র সচিব হর্ষবর্ধন শ্রীংলা, বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার রীভা গাঙ্গুলি দাশ প্রমুখ।

এ আয়োজনে সীমান্তের দুই পাশে রেলওয়ে স্টেশনগুলোতে রেলওয়ে বোর্ডের চেয়ারম্যানসহ সংশ্লিষ্ট কার্যক্রমের সঙ্গে জড়িত কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘দুই দেশের মধ্যকার সম্পর্ক রাজনীতি, সংস্কৃতি, বাণিজ্য, জ্বালানি, পরিবহন, প্রতিরক্ষাসহ আমাদের জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রকে স্পর্শ করে। আমরা (বাংলাদেশ-ভারত) প্রকৃতপক্ষে সম্পর্কের সর্বোচ্চ পর্যায় উপভোগ করছি। এই সপ্তাহে প্রথমবারের মতো ৫০টি কনটেইনার বেনাপোল-পেট্রাপোল রেল যোগাযোগের মাধ্যমে ভারত থেকে বাংলাদেশে এসেছে। গত সপ্তাহে কলকাতা থেকে লোহা ও ডাল নিয়ে প্রথম ট্রান্সশিপমেন্ট বাংলাদেশের চট্টগ্রাম বন্দরে এসেছে।’

তিনি বলেন, ‘একটি শক্তিশালী রেল সংযোগ অর্থনৈতিক বিকাশে বলিষ্ঠ ভূমিকা রাখতে পারে। এটি অভিন্ন প্ল্যাটফর্ম এবং জাতীয় সংহতকরণের অনুঘটক।’