বাংলাদেশে করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধির কারণ দুর্নীতি ও অনিয়ম

করোনা

মানুষের অসচেতনতা আর দায়িত্বশীলদের অবহেলাই নয়, সেই সাথে প্রাতিষ্ঠানিক দুর্নীতি ও অনিয়মের কারণে বাংলাদেশে করোনা সংক্রমণ বাড়িয়েছে। এমনটাই বলছেন জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা। আর এমন বাস্তবতায় ৯ জুলাই দেশে করোনা শনাক্তের ৪ মাস পূর্ণ হলো। করোনা ঠেকাতে গৃহীত পদক্ষেপের পাশাপাশি স্বাস্থ্য খাতের দুর্নীতি দমনেও সরকারকে কঠোর হওয়ার পরামর্শ দিয়েছে কোভিড জাতীয় কমিটি।

করোনাকালে স্বাস্থ্যখাতের চরম দুর্নীতি দৃশ্যমান হয় চিকিৎসকদের নিম্নমানের মাস্ক-পিপিই দেওয়ার ঘটনা সামনে এল। নিম্নমানের সুরক্ষা সামগ্রীর কারণে ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হন অনেক চিকিৎসক।

এরপর কোভিড-১৯ টেস্টের ভূয়া ফলাফল দেয় জেকেজি নামের প্রতিষ্ঠান। ফলে দেশে করোনা সংক্রমণ ঠেকানোর সাধারণ ছুটির সুফল পায়নি দেশ।

সম্প্রতি রিজেন্ট হাসপাতালের বিরুদ্ধে ওঠে একই অভিযোগ। ৬ বছর লাইসেন্স ছাড়াই চিকিৎসা সেবার নামে ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছিল প্রতিষ্ঠানটি। জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা মানুষের অসচেতনতা আর দায়িত্বশীলদের অবহেলার পাশাপাশি প্রাতিষ্ঠানিক দুর্নীতিকেও করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধির জন্য দায়ী করছেন।

চিকিৎসকদের সংগঠন বিডিএফ বলছে, দুর্নীতি না কমালে সরকারের নেওয়া করোনা প্রতিরোধ কার্যক্রমও ব্যাহত হবে।

কোভিড জাতীয় কমিটি বলছে, করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ কমিয়ে আনতে সরকারের গৃহীত সকল পদক্ষেপের পাশাপাশি কঠোরভাবে দমন করতে হবে দুর্নীতিও। ৮ মার্চ থেকে ৮ জুলাই পর্যন্ত দেশে মোট করোনা সনাক্ত রোগীর সংখ্যা ১ লাখ ৭২ হাজার ১৩৪ জন।

দেশে মারা যাওয়া ৭৯ ভাগ পুরুষ

বাংলাদেশে করোনাভাইরাসে মারা যাওয়া ৭৯.০৯ ভাগ পুরুষ এবং ২০.৯১ ভাগ নারী। বৃহস্পতিবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের করোনা বিষয়ক নিয়মিত সংবাদ সম্মেলনে অধিদপ্তরের অতিরিক্ত-মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা এ তথ্য জানান।

তিনি জানান, দেশে করোনাভাইরাসে গত ২৪ ঘণ্টায় ৪১ জনসহ মোট মারা গেছেন ২২৩৮ জন। তারমধ্যে ১৭৭০ জন পুরুষ। শতকরা হার ৭৯.০৯ ভাগ। এছাড়া ৪৬৮ জন নারী মারা গেছেন। মৃতের হার ২০.৯১ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় লিঙ্গ বিবেচনায় পুরুষ ২৯ জন এবং নারী ১২ জন মারা গেছেন। এ পর্যন্ত বয়স বিবেচনায় মৃতের হার ০-১০ বছর বয়সী ১৪ জন (০.৬৩ শতাংশ), ১১-২০ বছর বয়সী ২৬ জন (১.১৬ শতাংশ), ২১-৩০ বছর বয়সী ৭৩ জন (৩.২৬ শতাংশ), ৩১-৪০ বছর বয়সী ১৫৯ জন (৭.১০ শতাংশ), ৪১-৫০ বছর বয়সী ৩২৭ জন (১৪.৬১ শতাংশ), ৫১-৬০ বছর বয়সী ৬৫০ জন (২৯.০৪ শতাংশ) এবং ষাটোর্ধ্ব বয়সী ৯৮৯ জন (৪৮.১৯ শতাংশ)।

গত ২৪ ঘণ্টায় ১৫৬৩২টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এপর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৯ লাখ ৪ হাজার ৭৮৪টি। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্ত হয়েছে ৩৩৬০ জনের। এপর্যন্ত শনাক্ত ১ লাখ ৭৫ হাজার ৪৯৪ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ৩৭০৬ জনসহ মোট সুস্থ হয়েছেন ৮৪ হাজার ৫৪৪ জন। ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ২১.৪৯ শতাংশ এবং এ পর্যন্ত শনাক্তের হার ১৯.৪০ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৪৮.১৭ শতাংশ এবং শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার ১.২৮ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় বয়স বিবেচনায় মৃতের সংখ্যা ০-১০ বছর বয়সী একজন, ১১-২০ বছর বয়সী একজন, ৩১-৪০ বছর বয়সী দুজন, ৪১-৫০ বছর বয়সী তিনজন, ৫১-৬০ বছর বয়সী ১১ জন, ৬১-৭০ বছর বয়সী ১২ জন, ৭১-৮০ বছর বয়সী ৯ জন এবং ৮১-৯০ বছর বয়সী দুজন।

গত ২৪ ঘণ্টায় ঢাকা বিভাগে ১২ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে ১৪ জন, রাজশাহীতে দুজন, খুলনায় ছয়জন, ময়মনসিংহ বিভাগে দুজন, সিলেটে দুজন এবং রংপুরে তিনজন মারা গেছেন।

এপর্যন্ত ঢাকা বিভাগে ১১২৮ জন, চট্টগ্রামে ৫৮৫ জন, রাজশাহী বিভাগে ১১২ জন, খুলনায় ১১২ জন, বরিশালে ৮১ জন, সিলেটে ৯৭ জন, রংপুরে ৬৯ জন এবং ময়মনসিংহে ৫৪জন মারা গেছেন।

গত ২৪ ঘণ্টায় ঢাকা বিভাগে ২৭৪১ জন, চট্টগ্রামে ৪২০, রংপুরে ৬৮, খুলনায় ১০৮, বরিশালে ৯৮, রাজশাহী বিভাগে ১৯২, সিলেটে ৬৬ এবং ময়মনসিংহে ১৩ জন সুস্থ হয়েছেন।

 

যার মাধ্যমে টিভি মিডিয়ায় প্রভাব বিস্তার করেছিলেন সাহেদ

 

প্রকাশ পাচ্ছে সাহেদের নানা চাঞ্চল্যকর তথ্য

 

এভাবেই পেটাত ও নারী দিয়ে হেনস্তা করত সাহেদ

 

সাহেদের দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা

 

সাহেদের ব্যাংক হিসাব জব্দ

 

রিজেন্টের সাহেদের প্রধান সহযোগী গ্রেপ্তার

 

রিজেন্ট হাসপাতালের দুর্নীতি তদন্তে দুদক

 

সাহেদের স্ত্রীও এখন বিচার চান

You Might Also Like