পেরুতে যাত্রীবাহী বাস গিরিখাতে পড়ে ৪৪ জন নিহত

পেরুতে যাত্রীবাহী একটি বাস সড়ক থেকে ছিটকে গিরিখাতে পড়ে গেলে অন্তত ৪৪ জন নিহত হয়েছে।

ইন্ডিপেন্ডেন্ট ও স্ট্রেট টাইমস জানিয়েছে, বুধবার গভীর রাতে দেশটির দক্ষিণাঞ্চলীয় পার্বত্য এলাকায় দোতলা বাসটি প্রায় ২৬০ ফুট গভীর গিরিখাতে পড়ে গেলে এ ঘটনা ঘটে।

আরেকিপা অঞ্চলের ওকোনা জেলায় পেরুর প্রধান সড়ক প্যান-আমেরিকান মহাসড়কের একটি বাঁকে বাসটি গিরিখাতে পড়ে যায়। বাসটি উপকূলীয় এলাকা চালা থেকে আরেকিপা যাচ্ছিল।

আরেকিপার পুলশ প্রধান জেনারেল ওয়াল্টার অরটিজ ৪৪ জনের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছেন। তালিকা অনুযায়ী বাসটিতে ৪৫ যাত্রী ছিল বলে জানিয়েছেন অরটিজ। কিন্তু অভ্যন্তরীণ নিরপাপত্তা মন্ত্রণালয় যাত্রীসংখ্যা আরো বেশি থাকার কথা বলছে। তাদের যুক্তি, পথে বাসটিতে যেসব যাত্রী উঠেছিল তালিকায় তাদের নাম উল্লেখ নেই।

ফলে দুর্ঘটনায় কতজন যাত্রী আহত হয়েছে তা স্থানীয় কর্তৃপক্ষ সুনির্দিষ্ট করে বলতে পারেনি। বাস চালকও তাদের মধ্যে রয়েছে কি না তাও জানা যায়নি। উদ্ধারকারীরা সামরিক হেলিকপ্টার দিয়ে গুরুতর আহত ১১ জনকে উদ্ধার করে হাসপাতাল নিয়ে গেছে।

এদিকে মর্মান্তিক এ ঘটনায় টুইটারে নিহতদের স্বজনদের প্রতি গভীর সহমর্মিতা প্রকাশ করেছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট পেদ্রো পাবলো কুইজিনস্কি।

পেরুতে প্রায়ই বাস দুর্ঘটনা ঘটে। চলতি বছর পেরুতে বাস দুর্ঘটনায় দ্বিতীয় সর্বোচ্চ প্রাণহানীর ঘটনা এটি। এর আগে গত ২ জানুয়ারি দেশটির প্রশান্ত মহাসাগরীয় উপকূলীয় অঞ্চলে ট্রাকের সঙ্গে সংঘর্ষের পর যাত্রীবাহী একটি বাস খাদে পড়ে অন্তত ৫২ জন নিহত হয়।

আর সরকারি হিসেব অনুযায়ী ২০১৬ সালে পেরুতে সড়ক দুর্ঘটনায় প্রায় ২ হাজার ৭০০ জনের মৃত্যু হয়।