নতুন দুই আর্থিক প্রতিষ্ঠানের অনুমোদন দেয়ার সিদ্ধান্ত

আওয়ামী লীগ এবার সরকার গঠনের দেড় মাসের মাথায় নতুন দুটি আর্থিক প্রতিষ্ঠানকে অনুমোদন দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

ডেপুটি গভর্নর এস কে সুর চৌধুরী জানান, বাংলাদেশ ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদ বুধবার মেরিডিয়ান ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড ও সিএপিএম ভেনচার ক্যাপিটাল অ্যান্ড ফাইন্যান্স লিমিটেড নামের দুটি প্রতিষ্ঠানকে অনুমোদন দেয়ার ‘নীতিগত’সিদ্ধান্ত নেয়।

এর মধ্যে মেরিডিয়ান ফাইন্যান্সের মূল উদ্যোক্তা হিসাবে আছেন সাবেক আমলা কাজী আমিনুল ইসলাম, যিনি বিগত তত্ত্বাবধায়ক সরকারের প্রধান উপদেষ্টার সময় এবং শেখ হাসিনার গত সরকারের শুরুর দিকে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব ছিলেন।

সিএপিএম ভেনচার ক্যাপিটাল অ্যান্ড ফাইন্যান্স লিমিটেডের মূল উদ্যোক্তা মাহমুদ হোসাইন সম্পদ ব্যবস্থাপনা প্রতিষ্ঠান সিএপিএম এর  প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক।

ডেপুটি গভর্নর বলেন, “অনুমোদন পাওয়ার জন্য প্রতিষ্ঠানগুলোকে আগ্রহপত্র (লেটার অব ইনটেন্ট) দিতে বলা হয়েছে।”

বর্তমানে দেশে ৩১টি আর্থিক প্রতিষ্ঠান কার্যক্রম চালাচ্ছে। আওয়ামী লীগের গত মেয়াদে মোট নয়টি ব্যাংক ও একটি আর্থিক প্রতিষ্ঠানের অনুমোদন দেওয়া হয়। রাজনৈতিক বিবেচনায় এসব অনুমোদন দেয়া হয় বলে সে সময় অভিযোগ ওঠে।

এস কে সুর জানান, নতুন দুই আর্থিক প্রতিষ্ঠানের পরিশোধিত মূলধন হতে হবে অন্তত ১০০ কোটি টাকা। এই অর্থের জন্য উদ্যোক্তাদের পুরো করও পরিশোধ করতে হবে।

এছাড়া আইন অনুযায়ী আরও ৩০টি শর্ত পূরণ করতে হবে উদ্যোক্তাদের।

“এটা অনুমোদনের প্রাথমিক পর্যায়। এখন উদ্যোক্তাদের অন্যান্য শর্ত পূরণ করতে হবে। তারা তাদের ব্যবসায়িক পরিকল্পনা জমা দেবেন, আমরা দেখব। তারপর চূড়ান্ত অনুমোদন দেয়া হবে।”

মেরিডিয়ান ফাইন্যান্সের কাজী আমিনুল ইসলাম বিগত তত্ত্বাবধায়ক সরকারের একটি বড় সময় প্রধান উপদেষ্টার কার্যালয়ের সচিব হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন।

আওয়ামী লীগ ২০০৯ সালের জানুয়ারিতে সরকার গঠনের পর মার্চে তাকে বিশ্ব ব্যাংকের বিকল্প নির্বাহী পরিচালক করে ওয়াশিংটনে পাঠানো হয়। সেখানে তার চাকরির মেয়াদ শেষ হয় ২০১২ সালের অগাস্টে।

অন্যদিকে সিএপিএম ভেনচার ক্যাপিটালের মাহমুদ হোসাইন দীর্ঘদিন জাপান, যুক্তরাজ্য ও যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন আর্থিক প্রতিষ্ঠানে কাজ করার পর ২০১১ সালে দেশে ফিরে গড়ে তোলেন সম্পদ ব্যবস্থাপনা প্রতিষ্ঠান সিএপিএম। তিনি এই প্রতিষ্ঠানের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক।

এছাড়া সিভিসিএফএল অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট, সিএপিএম অ্যাডভাইজরি লিমিটেড ও সিএপিএম ফাইনান্সিয়াল ট্রেইনিং ইনস্টিটিউটসহ কয়েকটি প্রতিষ্ঠানের মূল উদ্যোক্তা তিনি।

অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় ও নিউ ইয়র্ক বিশ্ববিদ্যালয়ের স্টার্ন বিজনেস স্কুলের ডিগ্রিধারী মাহমুদ হোসাইনের বাড়ি ফরিদপুরে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *