‘টাইমস নাও’-এর বিরুদ্ধে ৫০০ কোটি টাকার মানহানির নোটিশ জাকির নায়েকের

ভারতের মহারাষ্ট্রের ধর্ম প্রচারক ডা. জাকির নায়েক মুম্বাইয়ের নিউজ চ্যানেল ‘টাইমস নাও’ এবং তার চিফ এডিটর অর্ণব গোস্বামীর বিরুদ্ধে ৫০০ কোটি টাকার মানহানির নোটিশ পাঠিয়েছেন।

আজ (শুক্রবার) গণমাধ্যমে প্রকাশ, বিদ্বেষমূলক প্রচারণা এবং মিডিয়া ট্রায়াল চালানোর অভিযোগে জাকির নায়েকের পক্ষ থেকে ওই নোটিশ পাঠানো হয়েছে।

ডা. জাকির নায়েকের আইনজীবী মুবীন সোলকারের পক্ষ থেকে পাঠানো ওই নোটিশে সংশ্লিষ্ট চ্যানেলটির বিরুদ্ধে ধর্মীয় সম্প্রদায়ের মধ্যে বৈরিতা, বিদ্বেষ ছড়ানো, জাকির নায়েক ও মুসলিম সম্প্রদায়ের ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দেয়ার অভিযোগ করা হয়েছে। নোটিশে বলা হয়েছে, ‘আপনি মুসলিমদের ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দিয়েছেন।’

ডা. জাকির নায়েক বর্তমানে বিদেশে রয়েছেন। তার বিরুদ্ধে ভারতে কয়েকটি সংস্থা তদন্ত চালাচ্ছে। ঢাকার গুলশানে হামলা চালানো সন্ত্রাসীরা তার বক্তব্যে উৎসাহিত হয়েছিল কি না তা খতিয়ে দেখছে বিভিন্ন এজেন্সি।

ডা. জাকির নায়েক অবশ্য সাংবাদিকদের বলেছেন, ‘আমি শান্তির দূত, কখনো সন্ত্রাসবাদকে উৎসাহিত করিনি।‘ তিনি সন্ত্রাসবাদকে নিন্দা করেন এবং ইসলামে সন্ত্রাসের কোনো স্থান নেই বলে মন্তব্য করেন। এ নিয়ে তিনি মিডিয়া ট্রায়ালের শিকার হচ্ছেন বলেও সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করেন।

ডা. জাকির নায়েক গণমাধ্যমের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘আমি মিডিয়াকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে বলছি, একটিও উদাহরণ দেখান যেখানে আমি সন্ত্রাসবাদকে সমর্থন করেছি। আমি কখনো সন্ত্রাসবাদকে সমর্থন করিনি এবং কখনও করব না।’

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশের একটি সংবাদপত্র আমার বিরুদ্ধে ভুল খবর ছেপেছিল। ভারতীয় মিডিয়া ওই সংবাদপত্রকে উদ্ধৃত করে খবর চালিয়েছে।’

এতদিন ধরে এ ধরণের কথা বলা হলেও এই প্রথম জাকির নায়েকের পক্ষ থেকে কোনো গণমাধ্যমের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নেয়ার কথা প্রকাশ্যে এল।

You Might Also Like