গণধর্ষণের শিকার সুজেট জর্ডন মারা গেছেন

কলকাতার পার্ক স্ট্রিটে গণধর্ষণের শিকার সুজেট জর্ডন শুক্রবার ভোররাতে মারা গেছেন। তিনি ম্যানেনজো-এনসেফেলাইটিসে আক্রান্ত হয়ে গত তিনদিন ধরে হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন।

চল্লিশ বছর বয়সী সুজেটের মা আর দুই মেয়ে রয়েছেন।

মিডিয়ায় আসা বহুল আলোচিত গণধর্ষণের শিকার হওয়ার প্রায় একবছর পরে নিজের পরিচয় প্রকাশ করার পর থেকে ভারতে ধর্ষণের বিরুদ্ধে আন্দোলনের অন্যতম মুখ হয়ে উঠেছিলেন সুজেট জর্ডন।

ভারতে ধর্ষিতা বা যৌননিগ্রহের শিকার হওয়া ব্যক্তিদের পরিচয় প্রকাশের ওপরে আইনি নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। কলকাতায় অন্য একটি ধর্ষণের ঘটনার প্রতিবাদে রাস্তায় নেমে নিজের পরিচয় দিয়েছিলেন সুজেট জর্ডন।

মধ্য কলকাতার পার্ক স্ট্রিট এলাকার একটি নাইট ক্লাব থেকে বেরনোর পরে তাকে একটি চলন্ত গাড়িতে ধর্ষণ করেছিল পাঁচ যুবক। পরে ভোররাতে তাকে গাড়ি থেকে ফেলে দেওয়া হয়। পুলিশ প্রথমে ধর্ষণের অভিযোগও নিতে চায়নি।

কিন্তু খবরটি সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত হওয়ায় চাপে পড়ে পুলিশকে ধর্ষণের মামলা শুরু করতে হয়। পুলিশ এখনও মূল অভিযুক্তকে গ্রেফতার করতে পারেনি। মামলাটিও খুব ধীরগতিতে চলছে।

ঘটনার পরে দীর্ঘদিন কাউন্সেলিং আর ধ্যানের মতো বিভিন্ন পদ্ধতিতে ধীরে ধীরে স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে শুরু করেন সুজেট। বিভিন্ন স্কুলের বাচ্চা আর অভিভাবকদের সামনে নিজের লড়াইয়ের কথাও তুলে ধরতে আরম্ভ করেছিলেন তিনি।