কৃষক হত্যায় ছেলের ফাঁসি, বাবা-মাসহ ৫ জনের যাবজ্জীবন

কিশোরগঞ্জের বাজিতপুরে কৃষক ছিদ্দিক মিয়া হত্যা মামলায় ছেলে জুয়েল মিয়ার (২৭) মৃত্যুদণ্ড ও তার বাবা ও মাসহ পাঁচজনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এসময় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিকে দুই লাখ ও যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামিদের এক লাখ টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে।

কিশোরগঞ্জের প্রথম অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. আ. রহিম সোমবার সকালে এ রায় ঘোষণা করেন।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত জুয়েল বাজিতপুর উপজেলার হিলোচিয়া বড়মাইপাড়া গ্রামের জজ মিয়ার ছেলে।

যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন- একই গ্রামের মো. জজ মিয়া (৫২), তার ছেলে মো. কাকন মিয়া (২৯), জজ মিয়ার স্ত্রী মোছা. রহিমা খাতুন, জয়নাল আবেদিনের ছেলে মো. মাহবুব হাসান রঞ্জু ও মজলু মিয়ার ছেলে মো. সাইফুল ইসলাম (৩৫)। এদের মধ্যে মো. সাইফুল ইসলাম ও মো. কাকন মিয়া পলাতক রয়েছেন।

মামলার বিবরণে জানা যায়, ২০১৬ সালের ২২ জানুয়ারি বাজিতপুর উপজেলার হিলোচিয়া ইউনিয়নের বরমাইপাড়া গ্রামে জমি নিয়ে বিরোধে লোহার রড ও শাবল দিয়ে পিটিয়ে ছিদ্দিক মিয়াকে গুরুতর আহত করে আসামিরা। এরপর ঢাকায় নেয়ার পথে ছিদ্দিক মিয়ার মৃত্যু হয়।

নিহত কৃষক ছিদ্দিক মিয়া একই এলাকার বাসিন্দা।

এ ঘটনায় নিহতের ভাই বাদী হয়ে পরদিন ছয়জনকে আসামি করে বাজিতপুর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।