আফগানিস্তানে দুই মাসে ৩ সাংবাদিক হত্যা

রাহমাতুল্লাহ নেকজাদ নামে আফগান সাংবাদিক

বাড়ির কাছেই রাহমাতুল্লাহ নেকজাদ নামে ওই আফগান সাংবাদিককে গুলি চালিয়ে হত্যা করা হয়। ছবি : এএফপি

আফগানিস্তানে পূর্বাঞ্চলীয় শহর গাজনিতে এক সাংবাদিককে গুলি করে হত্যা করেছে আততায়ীরা। গত দুই মাসে এ নিয়ে তিনজন সাংবাদিক হত্যাকাণ্ডের শিকার হলেন দেশটিতে।

বার্তা সংস্থা এএফপির বরাত দিয়ে কাতারভিত্তিক আলজাজিরা জানায়, বাড়ির কাছেই রাহমাতুল্লাহ নেকজাদ নামে ওই আফগান সাংবাদিককে গুলি চালিয়ে হত্যা করা হয়।

সোমবার গাজনি প্রদেশের পুলিশের মুখপাত্র আহমদ খান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, বাড়ির কাছে মসজিদে যাওয়ার সময় সাইলেন্সড পিস্তল থেকে গুলি করে হত্যা করা হয় সাংবাদিক নেকজাদকে।

এখন পর্যন্ত কোনো গোষ্ঠী এ হত্যাকাণ্ডের দায় স্বীকার করেনি। তালেবানও এর দায় অস্বীকার করেছে। গোষ্ঠীটির মুখপাত্র জাইবুল্লাহ মুজাহিদ বলেন, এ হত্যাকাণ্ডকে আমরা দেশের জন্য বড় ক্ষতি মনে করি।

আফগান জার্নালিস্ট সেফটি কমিটি সূত্রে জানা গেছে, ৪০ বছর বয়সী নেকজাদ এএফপি এবং আলজাজিরায় ফ্রিল্যান্সার হিসেবে কাজ করতেন।

এক টুইটে আল জাজিরা জানায়, এ হত্যাকাণ্ডের খবর তাদের জন্য বড় ধরনের ধাক্কা। সাংবাদিকদের ওপর যে কোনো ধরনের হামলা এবং তাদের থামিয়ে চেষ্টার কড়া নিন্দা জানিয়েছে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যমটি।

ডিসেম্বরেই দেশটিতে গুলি চালিয়ে গাড়িচালকসহ হত্যা করা হয় এক টিভি চ্যানেলের উপস্থাপিকাকে।

এনিকাস রেডিও ও টেলিভিশন চ্যানেলে চার বছরেরও বেশি সময় ধরে উপস্থাপিকা হিসেবে কাজ করছিলেন ২০ বছর বয়সী মালালাই মাইওয়ান্দ।

সাংবাদিকতা ছাড়াও নারী ও শিশু কল্যাণমূলক উদ্যোগের সঙ্গে জড়িত ছিলেন এ উপস্থাপিকা।

২০১৭ সালে এনিকাস রেডিওর এক গাড়িচালকসহ বেশ কিছু কর্মী মারা যান অফিসের পাশেই একটি হামলায়। ২০১৮ সালে এই রেডিও স্টেশনের পরিচালককে গুম করে অজ্ঞাত কিছু ব্যক্তি। এছাড়া শুধু ২০১৯ সালেই অন্তত দশজন সাংবাদিক খুন হয়েছেন আফগানিস্তানে।

সংবাদমাধ্যমের অধিকার নিয়ে সোচ্চার সংস্থা রিপোর্টার্স উইদাউট বর্ডার্সের মতে, বিশ্বে এই মুহূর্তে সাংবাদিকদের জন্য অন্যতম বিপজ্জনক রাষ্ট্র আফগানিস্তান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *