ধর্ষণ সম্পর্কে ইমরান খানের মন্তব্য, ক্ষমা চাওয়ার দাবিতে বিক্ষোভ

ধর্ষণ সম্পর্কে ইমরান খানের মন্তব্য, ক্ষমা চাওয়ার দাবিতে বিক্ষোভ

ধর্ষণের জন্য নারীর পোশাক দায়ী বলে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান মন্তব্য করার পর তার দেশে বিক্ষোভ শুরু হয়েছে। অ্যাক্টিভিস্টি ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা বিক্ষোভের আয়োজন করেছেন বলে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমগুলোর প্রতিবেদনে উঠে এসেছে। 

নারীদের পোশাক নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করার জন্য ইমরান খানকে ক্ষমা চাইতে হবে বলে দাবি তুলেছেন বিক্ষোভকারীরা।

বিক্ষোভকারীরা বলছেন, পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান যে মন্তব্য করেছেন, তাতে সরাসরি ভুক্তভোগীকে দায়ী করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীকে ভুল স্বীকার করে ক্ষমা চাওয়ার দাবিতে বিভিন্ন ধরনের লেখা সম্বলিত প্ল্যাকার্ড ও ব্যানার নিয়ে বিক্ষোভ করেন বিক্ষুব্ধ জনতা।

বিক্ষোভকারীরা মনে করেন, প্রধানমন্ত্রীর এ ধরনের মন্তব্যে ধর্ষকরা আরো উৎসাহ পাবে।

প্রসঙ্গত, টেলিভিশনের সরাসরি সম্প্রচারিত অনুষ্ঠানে ইমরান খান ধর্ষণের জন্য নারীর পোশাককে দায়ী করেছেন। ইমরান খান বলেছেন, নারী ধর্ষণের ঘটনা অনেক দ্রুত বাড়ছে। প্রলুব্ধ করা এড়াতে নারীদের পর্দা করার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

ইমরান খান আরো বলেছেন, পর্দার মূল বিষয় হলো আকর্ষণ করা থেকে বিরত থাকা। সবার তা অস্বীকার করার ইচ্ছাশক্তি থাকে না।

পাকিস্তানের মানবাধিকার কমিশন এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, ইমরান খানের মন্তব্যে তারা হতবাক। কেন ও কিভাবে ধর্ষণের ঘটনা ঘটে, তার মন্তব্যে কেবল সে সম্পর্কে অজ্ঞতা প্রকাশ করা হয় না। এ ধরনের মন্তব্যের মধ্য দিয়ে ধর্ষণের শিকার নারীদের ওপর দায় বর্তানো হয়।

সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস

 


Comment As:

Comment (0)