অপহরণ করে মুক্তিপণ নিতে এসে দুই ছাত্রলীগ কর্মী আটক

জেলার কমলনগর উপজেলার তোরাবগঞ্জ বাজারের রাজু আহমদ নামে এক ব্যবসায়ীকে অপহরণের পর পরিবারের কাছ থেকে ১ লাখ টাকা মুক্তিপণ আদায়ের সময়  ছাত্রলীগের দুই কর্মীকে আটক করেছে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)।

মঙ্গলবার দুপুরে লক্ষ্মীপুরের শহরের তমিজ মার্কেট এলাকা থেকে অপহরণকারী ওই দুই ছাত্রলীগ কর্মীকে হাতেনাতে আটক করা হয়। এরপর অপহৃত ব্যবসায়ী রাজু আহমদকেও উদ্ধার করে ডিবি। আটকরা হচ্ছেন, সদর উপজেলার বাঞ্চানগর গ্রামের দেলোয়ার হোসেনের ছেলে কামরুল হাসান শাকিল (২৭) ও একই গ্রামের দেলোয়ার হোসেনের ছেলে জসিম উদ্দিন (১৩)।  আটকৃতরা নিজেদের লক্ষ্মীপুর পৌরসভা ছাত্রলীগ কর্মী বলে দাবি করেছে।

মুক্ত হওয়ার পর ব্যবসায়ী রাজু আহমেদ জানান, তোরাবগঞ্জ বাজারের রব মেশিনারীজ স্বত্তাধিকারী তিনি। ব্যবসারা কাজে তোরাবগঞ্জ বাজার থেকে লক্ষ্মীপুরে আসার পর হাসপাতাল এলাকা থেকে অস্ত্রের মুখে কয়েকজন যুবক তাকে মোটরসাইকেলে তুলে নিয়ে যায়। পরে অজ্ঞাত স্থানে ৪দিন ধরে আটকিয়ে রেখে ১লাখ টাকা মুক্তিপণের দাবীতে বেদম মারধর করে। দাবীকৃত টাকা নিয়ে তাকে উদ্ধার করার জন্য পরিবারের কাছে মোবাইল ফোন করেন। এ খবর পেয়ে গোয়েন্দা পুলিশের সহযোগিতায় তার চাচাতভাই আলাউদ্দিনসহ পরিবারের লোকজন মঙ্গলবার দুপুরে লক্ষ্মীপুরে আসেন। পরে টাকাসহ পুলিশ তাকে উদ্ধার ও অপহরণকারীদের আটক করেন।

জেলা গোয়েন্দা পুলিশ কর্মকর্তা মো. আবদ্ঠুলাহ আল মামুন সাংবাদিকদের জানান, গত ৪দিন ধরে  অজ্ঞাত স্থানে রাজুকে আটকিয়ে রেখে পরিবারের কাছে মুঠোফোনে ১ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবী করছে সন্ত্রাসীরা।

এ ঘটনায় ৪জনকে আসামী করে সদর থানায় একটি মামলা করা হয়েছে বলেও তিনি জানান।