শিল্প সাহিত্য

মায়া এঞ্জেল্যুর কবিতা

মায়া এঞ্জেল্যু। মার্কিন কবি। গায়িকা এবং সিভিল রাইটস অ্যাক্টিভিস্ট হিসেবেও বিশ্বে সমান পরিচিত। উপার্জন শুরু করেন রান্নার কাজ করে। যৌনকর্মী এবং নাইটক্লাবে নর্তকীও হতে হয়েছে বেঁচে থাকার তাগিদে। মায়া শৈশবে

কথা ছিল

মোবাশ্বির হাসান শিপন   কথা ছিল মুঠো মুঠো স্বপ্ন পরিধির নোঙর ভালোবাসার পলি জমে ফুলে-ফেঁপে অনাবাদী চরে একদিন সবুজের আবাদ কেড়ে নিবে অনুর্বর সময়। নাটাইয়ের সূতার ভাঁজে লুকিয়ে থাকা আমাদের

  • কবিতা
  • রবিবার, এপ্রিল ২৮, ২০১৯

আত্মার শুদ্ধি

রুমা মারুমা সুলতানা   যদি করো নিয়মিত শুদ্ধতার সাথে অযু, পবিত্র হবে আত্মা আর স্রষ্টায় হবে রুজু   নিয়মিত যদি পড়ো, পবিত্র আল কুরআন দূর হবে অপমান, সাথে রবে সম্মান…

সাহিত্য বিচারের মৌলিক দৃষ্টিভঙ্গি

এবনে গোলাম সামাদ : সাহিত্য ভাষানির্ভর। হেজাজে ইসলাম-পূর্ব যুগেই আরবি একটা শক্তিশালী লিখিত ভাষায় পরিণত হয়েছিল। হেজাজের আরবদের মধ্যে বেশ কিছুসংখ্যক ব্যক্তি আরবিতে পড়তে, লিখতে ও গুনতে পারতেন। তাই সেই

আল মাহমুদ ও তাঁর নিজস্ব কাব্যভুবন 

মুহম্মদ মতিউর রহমান আল মাহমুদ (১৯৩৬-২০১৯) আধুনিক বাংলা কবিতার অন্যতম প্রধান কবি। অসংখ্য কবির ভিড়ে তিনি স্বকীয় বৈশিষ্ট্যে সনাক্তযোগ্য একজন কবি হিসাবে আধুনিক বাংলা কবিতার সমৃদ্ধ ভুবনে নিজের আসন চিহ্নিত

আনিসুল হকের ‘লেখা নিয়ে লেখা’

কাজী সাইফুল ইসলাম এই সময়ের অত্যন্ত জনপ্রিয় লেখক আনিসুল হক। তার গল্প বলার ধরন জনপ্রিয়তার জন্যই নয়— এটা তার একপ্রকার সাধনা। যা পাঠককে একটি পথের কাছে নিয়ে যায় সহজে। যে

গুইন্টার গ্রাসের শেষ সাক্ষাৎকার

ছুঁয়ে যেতে হবে মানুষের হৃদয় ভূমিকা : গুইন্টার ভিলহেল্ম গ্রাস ১৯২৭ সালে ১৬ অক্টোবর ভাইমার রিপাবলিকের যে শহরে – ডান্তসিগে (Danzig)— জন্মেছিলেন তা আজকের পোল্যেণ্ডের গ্যেডাইস্ক (Gdańsk) নগরী হিসেবে পরিচিত।

গোল: চাইর কোণা পোস্টবক্স থেকে

শারমিন শাহনাজ আমার আম্মার বাসায় গ্রাম থেকে দূর সম্পর্কের  এক আত্মীয় বেড়াতে এসেছে। মেয়েটির বয়স সাত – আট বছর হবে ।নাম মিনা। কয়েক দিন আমাদের সাথে থাকবে। মিনার সব ব্যাপারে

বাংলাদেশ রক্তাক্ত মুক্তিযুদ্ধের মধ্য দিয়ে স্বাধীন হয়েছে। বাঙালি স্বাধীনতার লড়াইয়ে সব সময়—সুদীর্ঘ ঐতিহাসিক কাল ধরে—শামিল ছিল। কিন্তু উনিশশ একাত্তর সালে সাধারণ মানুষ যত স্বতঃস্ফূর্ত, আবেগে উদ্বেলিত ও উত্তাল ছিল তত

  • কবিতা
  • বৃহস্পতিবার, মার্চ ৮, ২০১৮

৭ মার্চের বাশীওয়ালা

সাকিল আহাম্মেদ যে তুমি ডাকলে আকাশ- আকাশ এসে লুটিয়ে যেতো, যে তুমি ডাকলে বাতাস- বাতাস এসে হুমড়ি খেতো, যে তুমি ডাকলে নদী- সাত সমুদ্দুর থামিয়ে যেতো;   সেই তুমি ডাক