লেখালেখি

সত্য বলা বিপজ্জনক হয়ে দাঁড়িয়েছে

১৯৭২-৭৫ সালে শেখ মুজিবের শাসনকালে পরলোকগত সাংবাদিক নির্মল সেন দৈনিক বাংলায় এই শিরোনামে কলাম লিখেছিলেন, ‘সত্য বলা বিপজ্জনক হয়ে দাঁড়িয়েছে’। সে সময়ের সংবাদপত্রে সত্য প্রকাশিত হলেই আওয়ামী শাসক মহলে একেবারে

বাংলা নববর্ষ পালন নাকি “বাংগালী প্রদর্শনী” ?

প্রতি বছর ঘটা করে বাংলা নববর্ষ পালনের আনুষ্ঠানিকতার মাধ্যমে আমরা অন্তত বছরে একটা দিনে হলেও উপলব্ধি করার সুযোগ পাই যে আমরা জাতি হিসাবে বাংলা তথা বাংগালীত্বের সাথে কিভাবে প্রতারণা করছি।

প্রীতি ও শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করছি এবিএম মূসাকে

এবিএম মূসার প্রয়াণে শোকসন্তপ্ত বহু সাংবাদিক ও গুণগ্রাহী শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন। সেটাই আশা করা গিয়েছিল। ছয় দশক ধরে তিনি সাংবাদিকতা করেছেন। বাংলাদেশ এবং তার পূর্বসূরি পূর্ব পাকিস্তানের বৃহত্তর স্বার্থ রক্ষায়

মন্ত্রীর ‘শিষ্টাচার’ ও ‘রাবিশ’ প্রসঙ্গ

আমাদের বাহাত্তরে পাওয়া অর্থমন্ত্রীর নাম আবুল মাল আব্দুল মুহিত। নামটা তার বেশ বড়। ফলে এই নামের যেকোনো অংশ ধরেই তাকে সম্বোধন করা নিশ্চয়ই ‘শিষ্টাচার’ বহির্ভূত হবে না। কেউ তাকে আবুল

উপজেলা নির্বাচন থেকে যে শিক্ষা পাওয়া গেল

উপজেলা পরিষদের নির্বাচন নিয়ে আলোচনার আগে পাঠকদের অনুরোধের পরিপ্রেক্ষিতে ২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবসে জাতীয় প্যারেন্ড গ্রাউন্ডে লাখো কণ্ঠে জাতীয় সঙ্গীত অনুষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা সম্পর্কে দু-একটি কথা বলতে চাই। ১৯৭১ সালের ২৬

ফুটানির বুদ্বুদ সৃষ্টি করে সরকারকে বৈধ করা যাবে না

ইউরোপ-আমেরিকার দেশগুলোর দ্বিতীয় মহাযুদ্ধের ধকল সামলে নিতে বেশ সময় লেগেছিল। তারপর পঞ্চাশের দশকের শেষার্ধ থেকে ষাট ও সত্তরের দশকে মার্কিন পর্যটকেরা ভিড় করে ব্রিটেনে আসতে থাকে। শত চেষ্টা করেও তখন

পঞ্চম পর্বের উপজেলা নির্বাচন

আমার এ লেখা যেদিন পত্রিকায় ছাপা হয়ে পাঠকের হাতে যাবে, সেদিন পঞ্চম ও শেষ পর্বের উপজেলা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এ নির্বাচন কেমন হবে? ভালো কিছু দেখতে পারব আমরা? ভালোভাবে অনুষ্ঠিত

কতদূর যেতে পারবেন পুতিন?

ক্রিমিয়ায় রাশিয়া তার কর্তৃত্ব প্রতিষ্ঠা করার পর যে প্রশ্নটি এখন অনেকেই করছেন তা হচ্ছে, কতদূর যেতে পারবেন পুতিন? মার্কিন ও ইউরোপীয় ইউনিয়নের নিষেধাজ্ঞার পর মূলত দুটি প্রশ্নকে ঘিরে আলোচনা চলছে

ভারতের নাম বদল

দৈনিক বর্তমান ২৪ মার্চ ২০১৪ সংখ্যায় ‘ভারতের নাম বদল’ শিরোনামে একটি খবর পড়লাম। ওই পত্রিকায় লেখা হয়েছে, ভারতের আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে একটি দল (নাম বলা হয়নি) তাদের নির্বাচনী ইশতেহারে বলেছে,

সেকুলারিজমের প্রকৃত তাৎপর্য

বাংলাদেশে সেকুলারিজমের অনুবাদ করা হয় ‘ধর্মনিরপেক্ষতাবাদ’। কিন্তু এ অনুবাদ সঠিক নয়। ধর্মনিরপেক্ষতাবাদ কথাটি সেকুলারিজমের প্রকৃত তাৎপর্য প্রকাশ করে না। এতে বিভ্রান্তি সৃষ্টি হয় এবং জনগণ প্রকৃত বিষয়টি বুঝতে পারে না।