লেখালেখি

অর্থনৈতিক উন্নতি ও নৈতিক দায়

ভোরবেলা যাচ্ছিলাম কমলাপুর স্টেশনে। রাস্তায় খুব কম যানবাহন। তবু এক সিগন্যালে একটু থামতে হলো বাঁ দিক থেকে কয়েকটি গাড়ি ক্রসিং পার হয়ে ডান দিকে আসায়। একটি পিকআপ পাশ ঘেঁষে থামতে

আরো কয়েকটি বিশ্ববিদ্যালয় নিয়ে কথা

বাংলাদেশের ৪৩ বছরে গণতন্ত্রের উঠতি-পড়তি খুব কম নয়। মূলধারাটি নিশ্চিতভাবে গণতন্ত্রের পরিপন্থী। এরশাদ আমলে দীর্ঘ সংগ্রামের পর এখানে নতুন করে গণতন্ত্রের বীজ বপিত হয়েছিল। মূল দুটি দল আওয়ামী লীগ ও

গণজাগরণ মঞ্চ কি অস্তিত্ব হারাবে?

সম্প্রতি গণজাগরণ মঞ্চ নিয়ে একাধিক ঘটনা ঘটেছে। গণজাগরণ মঞ্চের মুখপাত্র হিসেবে পরিচিত ডা. ইমরান এইচ সরকারকে অব্যাহতি দিয়েছে সংগঠনের অপর এক অংশ। পাল্টা আরেকটি অংশ গণজাগরণ মঞ্চের নামে সংগঠিত হয়েছে।

ভারতের নির্বাচন ও সাম্প্রদায়িকতা

ভারতের চলতি নির্বাচনে উন্নয়ন, দুর্নীতি ইত্যাদি কিছু বিষয় সামনে এলেও সবচেয়ে বড় আকারে সামনে এসে দাঁড়িয়েছে সাম্প্রদায়িক ইস্যু। যেভাবে এই ইস্যু এখন সামনে এসেছে ইতিপূর্বে কোনো নির্বাচনে সেটা দেখা যায়নি।

মূসা ভাইকে যেমন জেনেছি-দেখেছি

এবিএম মূসা পরিণত বয়সেই মৃত্যুবরণ করেছেন। তবু আমি দারুণভাবে ব্যথিত হয়েছি। পরের দিন জাতীয় প্রেসক্লাবে তাঁর জানাজায় শরিক হতে গিয়ে যানজটে আটকে সময়মতো পৌঁছাতে পারলাম না। পুরোটা দিন মনটা অত্যন্ত

বাংলাদেশের তিনটি অপরাধ

আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক পরাশক্তির চোখে বাংলাদেশ তিনটি ঘোরতর অপরাধে অপরাধী। এই অপরাধ সম্পর্কে বাংলাদেশের নাগরিকদের ধারণা স্পষ্ট থাকা দরকার। এই দিকটি স্পষ্ট না থাকলে বাংলাদেশের জনগণের এখনকার বিপদের গুরুত্ব যেমন

আবু বকর ফিরলেন, বাকিরা?

অপহরণকারীদের হাত থেকে ছাড়া পাওয়ার পর আবু বকর সিদ্দিক, পাশে তাঁর স্ত্রী সৈয়দা রিজওয়ানা হাসানশুক্রবার পত্রিকা খুলে পাওয়া গেল পরম আনন্দ আর স্বস্তির একটি সংবাদ। সৈয়দা রিজওয়ানা হাসানের স্বামী আবু

গণজাগরণ মঞ্চকে নিয়ে নেপথ্যে কলকাঠি নাড়ছেন কারা?

ইতিহাস বলে, ইতিহাস থেকে আমরা কোনো শিক্ষা নেই না। বাংলাদেশের বেলায় কথাটা সর্বাংশে সত্য বাংলাদেশের প্রগতিশীল রাজনীতির একটা বড় দুর্ভাগ্য এই যে, যখনই তা সামগ্রিক ঐক্যের ভিত্তিতে গণবিরোধী প্রতিক্রিয়ার দুর্গকে

গিনেস বুকে নাম ওঠাতে পরবর্তী আওয়ামী প্ল্যান

আয়ারল্যান্ডের রাজধানী ডাবলিনে গিনেস ব্রুয়ারির ম্যানেজিং ডিরেক্টর পদে কাজ করতেন স্যার হিউ বিভার। তিনি ছুটির দিনে তার বন্ধুদের নিয়ে পাখি শিকার করতে ভালোবাসতেন। তারা যেতেন বনে জঙ্গলে এবং পাহাড়ি এলাকায়।

আমার এক শিক্ষক এবং পিতৃতুল্য শিক্ষকেরা

সাম্প্রতিককালে, প্রত্যেক সপ্তাহের বুধবার নয়া দিগন্তেআমার কলাম বের হয়। সুতরাং তিন দিন বা দুই দিন বা অন্ততপে পত্রিকা মুদ্রিত হওয়ার ৩৬ ঘণ্টা আগে লিখিত কলামটি পত্রিকা অফিসে পৌঁছাতে হয়। সাধারণত