রাহুল গান্ধী গ্রেপ্তার

ভারতের জাতীয় কংগ্রেসের সহ-সভাপতি রাহুল গান্ধী গ্রেপ্তার হয়েছেন। তার সঙ্গে দলের কয়েকজন শীর্ষ নেতাকেও গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার কৃষক বিক্ষোভে ফুঁসে ওঠা মধ্য প্রদেশের মান্দসাউর জেলায় ঢুকতে বাধা দেওয়া হয় তাকে। গাড়ি থেকে নেমে মোটরসাইকেলে, হেঁটে বিক্ষোভস্থলে পৌঁছানোর তার সব প্রচেষ্টা ব্যর্থ করে দেয় নিরাপত্তা বাহিনী।

গ্রেপ্তারের পর রাহুল গান্ধীকে একটি গেস্ট হাউসে নেওয়া হয়। গেস্ট হাউসটিকে অস্থায়ী কারাগার হিসেবে ব্যবহার করা হচ্ছে।

মধ্য প্রদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ভূপেন্দ্র সিং বলেছেন, ‘রাহুল গান্ধী নিরাপত্তার সব ধারা লঙ্ঘন করেছেন। একটি জাতীয় দলের নেতা হিসেবে কলেজ-ছাত্রের মতো হেলমেট ছাড়া বাইক চালানো মানায় না তাকে।’

পুলিশ জানিয়েছে, কৃষক বিক্ষোভে উত্তাল মান্দসাউরে রাহুল গান্ধী ও কংগ্রেসের অন্য শীর্ষ নেতাদের যেতে বাধা দিয়েছে তারা। ওই স্থানে ফসলের ন্যায্য মূল্য ও ঋণ মওকুফের দাবিতে বিক্ষোভ করছেন কৃষকরা।

বুধবার এক টুইটে রাহুল গান্ধী জানান, পুলিশের গুলিতে নিহত পাঁচ কৃষকের পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে চান তিনি। তবে বৃহস্পতিবার পুলিশ তাকে হেফাজতে নেওয়ার পর তাদের সঙ্গে ফোনে কথা বলেছেন তিনি।

এদিকে, বিজেপি অভিযোগ করেছে, রাজনৈতিক ফায়দা নিতে কৃষক বিক্ষোভে উসকানি দিচ্ছেন রাহুল গান্ধী।

মধ্য প্রদেশের মান্দাসাউরে কৃষকদের বিক্ষোভে গুলি করে পাঁচ কৃষককে হত্যার পর পরিস্থিতি আরো উত্তাল হয়ে উঠেছে। সেখানে কারফিউ জারি করা হয়েছে।

মান্দসাউরে যাওয়ার পথে রাহুল গান্ধী বলেন, মোদি বড়লোকদের অর্থ দিতে পারেন কিন্তু কৃষকদের নয়। কৃষকদের অর্থের বদলে তিনি গুলি দিয়েছেন।

You Might Also Like