‘আমরা লাকি, অস্ট্রেলিয়া আনলাকি’

ওভালে ম্যাচ-পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে মাশরাফি বিন মুর্তজা বলেছেন, ‘আমরা লাকি, অস্ট্রেলিয়া আনলাকি। এ রকম একটি ম্যাচ থেকে পয়েন্ট পাওয়া ভাগ্যের বিষয়। এই এক পয়েন্ট আমাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ।’

সোমবার লন্ডনের ওভালে চ্যাম্পিয়নস ট্রফির পঞ্চম ম্যাচে মুখোমুখি হয় অস্ট্রেলিয়া ও বাংলাদেশ। আগে ব্যাটিং করে স্কোরবোর্ডে মাত্র ১৮২ রান তোলে বাংলাদেশ। জবাবে ১৬ ওভারে ৮৩ রান তুলতে ১ উইকেট হারায় অসিরা। এরপর বৃষ্টির বাগড়ায় একটি বলও মাঠে গড়ায়নি।

বৃষ্টিতে ম্যাচ পরিত্যক্ত হওয়ায় পয়েন্ট ভাগাভাগি করেছে বাংলাদেশ ও অস্ট্রেলিয়া। বৃষ্টি বাংলাদেশের জন্য আর্শীবাদ হয়ে এলেও বিড়ম্বনার শিকার অস্ট্রেলিয়া! সেমিফাইনালের টিকিট নিশ্চিত করতে হলে শেষ ম্যাচে ইংল্যান্ডকে হারাতেই হবে তাদের। বাংলাদেশেরও সেমিফাইনালে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। শেষ দুই ম্যাচে ইংল্যান্ড জয় পেলে এবং বাংলাদেশ নিউজিল্যান্ডকে হারালে প্রথমবারের মতো আইসিসি চ্যাম্পিয়নস ট্রফির সেমিফাইনাল খেলবে বাংলাদেশ।

তবে আপাতত এত দূরের কথা ভাবছেন না অধিনায়ক মাশরাফি। তার ভাষ্য,‘এই এক পয়েন্ট আমাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ। আমাদের শেষ ম্যাচ নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে। আমরা জানি না নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে জিতলে আমরা সেমিফাইনালে যাব কি না। আমরা আমাদের স্বাভাবিক খেলাটাই খেলব ওদের বিপক্ষে।’

ম্যাচে অস্ট্রেলিয়া এগিয়ে ছিল। ১৬ ওভার খেলা হওয়ায় ম্যাচের ফল আসেনি। আর ৪ ওভার অর্থাৎ ২০ ওভার খেলা হলেই সহজেই জয় পেত স্টিভেন স্মিথের দল। এক প্রশ্নের জবাবে মাশরাফি বলেন, ‘অস্বীকার করার কোনো কারণ নেই যে খেলায় অস্ট্রেলিয়া এগিয়ে ছিল। আর ৪ ওভার খেলা হলে অস্ট্রেলিয়া ২ পয়েন্ট নিয়ে যেত। ১ পয়েন্ট পেয়ে আমাদের ভালো লাগছে। আমাদের সুযোগ তৈরি হয়েছে। বাজে অবস্থায় ১ পয়েন্ট অনেক কিছু। এটাকে সর্বোচ্চভাবে কাজে লাগানোর চেষ্টা করব।’

মাশরাফির বিচক্ষণতাও পয়েন্ট পেতে বড় ভূমিকা রেখেছে। মাশরাফি জানতেন যেকোনো সময় বৃষ্টি আঘাত হানবে! সময় নষ্ট করে ম্যাচ বড় করতে পেসারদের দিয়ে টানা বল করিয়েছেন অধিনায়ক। ১৬ ওভারের মধ্যে ১৫ ওভারই করেছেন পেসাররা। মিরাজকে বোলিং আনলেও এক ওভারের বেশি দেওয়া হয়নি। পাশাপাশি ফিল্ডারদের পজিশন পরিবর্তন ও ধীরে বোলিং করায় ম্যাচ বড় হয়েছে।

এ নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে এক প্রশ্নের জবাবে মাশরাফি বলেন, ‘আমাদের হাত থেকে তো ম্যাচ চলেই গিয়েছিল। চিন্তায় ছিল যতটা সময় দেওয়া যায় ২০ ওভারের আগে ম্যাচটাকে বড় করার চেষ্টা করেছি। মিরাজকে বোলিংয়ে এনেও পবির্তন করেছি। খেলাটাকে আরো দূরে নিয়ে যাওয়া যায়, সেই চেষ্টাই করেছি।’

You Might Also Like