বোমা আছে হুমকিতে মালয়েশিয়ার বিমানের জরুরি অবতরণ

মালয়েশিয়া এয়ারলাইন্সের একটি বিমানে বোমা আছে বলে চিৎকার করে এক যাত্রী ককপিটে ঢোকার চেষ্টা করছিল। এসময় সহযাত্রীরা তাকে ধরে ফেলে। পরে ওই বিমানটি জরুরি অবতরণে বাধ্য হয়েছে।

বুধবার রাতে অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্ন থেকে মালয়েশিয়ার রাজধানী কুয়ালালামপুর অভিমুখে রওনা হওয়ার ৩০ মিনিটের মাথায় এমএইচ১২ ফ্লাইটটি মেলবোর্নে ফিরে আসে।

পুলিশ জানিয়েছে, এ ঘটনার সঙ্গে সন্ত্রাসবাদের কোনো যোগ নেই। আতঙ্ক ছড়ানো ওই যাত্রী মানসিক সমস্যায় ভুগছিলেন।

বিবিসি জানিয়েছে, ২৫ বছর বয়সী শ্রীলঙ্কার ওই নাগরিক মানসিক হাসপাতাল থেকে ছাড়া পাওয়ার কয়েক ঘন্টার মধ্যেই একটি টিকেট কিনে বিমানটিতে উঠেছিল। বিমানটি উড্ডয়নের কিছুক্ষণ পর সে কেবিন ক্রুদের কাছে জানায়, বিক্ষুব্ধ হওয়ার আগেই সে পাইলটের সঙ্গে দেখা করতে চায়। এসময় সে দাবি করে, তার সঙ্গে বোমা রয়েছে। ক্রুদের একজন যাত্রীদের কাছে যেয়ে বিষয়টি জানালে কয়েকজন যাত্রী ওই সন্দেহভাজনকে চেপে ধরে এবং সিটবেল্ট দিয়ে বেঁধে ফেলে। পরে বিমানটি মেলবোর্নে ফিরে গিয়ে জরুরি অবতরণ করে।

পুলিশ জানিয়েছে, ওই লোকটি ব্লুটুথ স্পিকার ডিভাইস বা এ জাতীয় কিছু বহন করছিল। তবে মালিয়েশিয়ার উপ যোগাযোগমন্ত্রী আব্দুল আজিজ বিন কাপরাউই জানিয়েছেন, এটি ছিল পাওয়ার ব্যাংক।

You Might Also Like