মডেলের মৃত্যুতে ফাঁসছেন বিক্রম

কলকাতার মডেল সোনিকা সিংয়ের মৃত্যুর ঘটনায় পশ্চিম বাংলার টেলিভিশন অভিনেতা বিক্রম চ্যাটার্জির বিরুদ্ধে ‘অনিচ্ছাকৃত খুন’র মামলা দায়ের করা হয়েছে। পুলিশের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে গতকাল আদালত মামলাটি গ্রহণ করেন। ভারতের আলিপুরে অতিরিক্ত মুখ্য বিচারবিভাগীয় ম্যাজিস্ট্রেটের এজলাসে পুলিশের এই আবেদন গৃহীত হয়। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এমন খবর প্রকাশ করেছে।

প্রকাশিত প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, পুলিশি তদন্তে গাড়ি চালানোর সময় বিক্রমের দায়িত্বজ্ঞানহীন কাণ্ড নিয়ে তথ্যপ্রমাণ পাওয়া গেছে। মূলত এরপরই বিক্রমের বিরুদ্ধে বেসামাল ও বেপরোয়া আচরণের অভিযোগ এনে অনিচ্ছাকৃতভাবে খুনের ধারা যুক্ত করে পুলিশ নতুন করে মামলা করে। এর ফলে তার সর্বোচ্চ যাবজ্জীবন সাজাও হতে পারে। এর আগে বিক্রমের বিরুদ্ধে জামিনযোগ্য ধারায় মামলা করা হয়েছিল। সেই মামলায় বিক্রম এখন জামিনে রয়েছেন। তবে নতুন ধারাটি যুক্ত করার ফলে বিক্রমকে গ্রেপ্তারে আর কোনো বাধা থাকছে না।

এদিকে ফরেনসিক রিপোর্টে বলা হয়েছে, ওই রাতে বিক্রমের গাড়ির গতি একবারও ৯০-এর নিচে নামেনি। এক সময় তা ১১৫ পর্যন্ত উঠেছিল। দুর্ঘটনার ঠিক সাড়ে চার সেকেন্ড আগে গাড়িটি ঘণ্টায় ১০৫ কিলোমিটার গতিবেগে ছিল বলে রিপোর্টে প্রকাশ করা হয়। দুর্ঘটনাটি ঘটার দেড় সেকেন্ড আগেও ব্রেক কষেননি বিক্রম। যেহেতু সামনের দিকে ধাক্কা লাগেনি, তাই গাড়ির এয়ারব্যাগও খোলেনি। বিক্রমের সিটবেল্ট বাঁধা থাকলেও সোনিকার সিটবেল্ট বাঁধা ছিল না বলে জানিয়েছে পুলিশ।

গত ২৯ এপ্রিল ভোররাতে দক্ষিণ কলকাতার রাসবিহারী অ্যাভিনিউ লেক মলের সামনে গাড়ি দুর্ঘটনায় মারা যান কলকাতার সুপারমডেল সোনিকা সিং চৌহান। এ সময় গাড়ি চালাচ্ছিলেন অভিনেতা বিক্রম চ্যাটার্জি। দুর্ঘটনার দিন মদ্যপান করে গাড়ি চালানোর কথা পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করেছেন এই অভিনেতা।

You Might Also Like