ভারতে জমজমাট ‘গরু-রাজনীতি’

ভারতে চলছে জমজমাট ‘গরু-রাজনীতি’। মোদি সরকারের নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়েছে বিরোধীদল ও কয়েকটি রাজ্য সরকার।

শুক্রবার কেন্দ্র সরকার এক গেজেট বিজ্ঞপ্তিতে ‘হত্যা বা জবাইয়ের উদ্দেশ্যে’ পশু কেনাবেচা নিষিদ্ধ করে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি সরকারের এই সিদ্ধান্তের তীব্র বিরোধিতায় সরব হয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি।

সোমবার সংবাদ সম্মেলনে মমতা বলেছেন, গরু কেনাবেচায় কেন্দ্র সরকারের জারি করা নির্দেশ অসাংবিধানিক। এই নির্দেশ আমরা মানব না এবং মানতে বাধ্যও নই।’

এর আগে কেরালার মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন গরু কেনাবেচা নিয়ে মোদি সরকারের জারি করা ফরমানের বিরুদ্ধে কঠোর আক্রমণ করে বলেন, ‘আমরা কী খাব আর কী খাব না, তা দিল্লি, নাগপুর ঠিক করে দিতে পারে না।’ দিল্লি বলতে তিনি বিজেপির নেতৃত্বাধীন কেন্দ্রীয় সরকার এবং নাগপুর বলতে বিজেপির আদর্শিক পথপ্রদর্শক রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘের (আরএসএস) সদরদপ্তর মহারাষ্ট্রের নাগপুরকে বুঝিয়েছেন।

গরু কেনাবেচার বিষয়ে নিষেধাজ্ঞার প্রতিবাদ করে কংগ্রেস ‘কালো দিবস’ পালন করেছে এবং কেরালার ক্ষমতাসীন দল সিপিএম ২০০ স্থানে গরুর মাংসের উৎসব করেছে। তামিলনাড়ুর প্রধান বিরোধী দল ডিএমকের নেতা এমকে স্টালিনের নেতৃত্বে চেন্নাইয়ে বিক্ষোভ হয়েছে।

এদিকে, ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজির (আইআইটি) ৮০ শিক্ষার্থী গরুর মাংসের উৎসব করেছেন। তারা কেন্দ্র সরকারের বিরুদ্ধে সাম্প্রদায়িক আজেন্ডা ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ এনেছেন।

পডুচেরির মুখ্যমন্ত্রী ভি নারায়নাস্বামী এই নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করার আহ্বান জানিয়েছেন।

ভারতের কোনো রাজ্যের মানুষ কী খাবে আর খাবে না, তা ঠিক করার জন্য রাজ্য সরকার রয়েছে। এ ক্ষেত্রে কেন্দ্র সরকার কোনো কিছু চাপিয়ে দিতে পারে না বলে বিরোধীদের দাবি। তবে কেন্দ্রীয় সরকারের পরিবেশ মন্ত্রণালয়ের জারি করা নির্দেশে বলা হয়েছে, শুধু কৃষিকাজের জন্য গবাদি পশু কেনাবেচা করা যাবে। হত্যার জন্য বা মাংস খাওয়ার জন্য ষাঁড়, গাভি, মহিষ, উটসহ অন্যান্য গবাদি পশু কেনাবেচা করা যাবে না।

গরু জবাইয় ও গরুর মাংস রাখার অভিযোগে বেশ কয়েকটি হত্যাকাণ্ড হয়েছে ভারতে। এসব ঘটনা নিয়ে মোদি ও তার সরকারের বিরুদ্ধে ব্যাপক সমালোচনা হয়েছে। তা ছাড়া গ্রামে গ্রামে ‘গাভিরক্ষা কমিটি’ করেছে বিজেপির স্থানীয় সমর্থকরা। তাদের কার্যক্রমও বিতর্কিত। সব মিলে গরু-রাজনীতি এখন ভারতের সবচেয়ে আলোচিত বিষয়।

You Might Also Like