কানাডার আদালতের রায় যথাযথ আইনি প্রক্রিয়া মেনে হয়নি: রিজভী

কানাডার কোনো আদালত রায় দিলেই বিএনপি সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে প্রমাণিত হয়ে যায় না। আর ওই আদালতের রায় যথাযথ আইনি প্রক্রিয়া মেনে হয়নি বলে জানিয়েছেন যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। বুধবার দলীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

এ সময় তিনি আরো বলেন, ‘একটি দেশের আদালত কিছু বলে দিলে তাতে সবকিছু প্রমাণ হয়ে যায় না। আর একজন ব্যক্তির বক্তব্যের ভিত্তিতে ‍চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে আসা যায় না। আমার মনে হয় বিভিন্ন আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা দুই এক মাস পর পর দেশে গুম, খুন ও বিচারবহির্ভূত হত্যা হচ্ছে বলে জানাচ্ছে। সেগুলোকে বড় গ্রাহ্যের মধ্যে আনা উচিত।’

উল্লেখ্য, কানাডা থেকে প্রকাশিত একটি বাংলা পত্রিকার প্রতিবেদনে বলা হয়, বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব হওয়া এক নেতা ২০১৪ সালে কানাডায় রাজনৈতিক আশ্রয় চেয়েছিলেন। কিন্তু বিএনপি সন্ত্রাসী কাজে লিপ্ত আছে, সন্ত্রাসী কাজে লিপ্ত ছিল, সন্ত্রাসী কাজে লিপ্ত হতে পারে- এটা বিশ্বাস করার যুক্তিসঙ্গত কারণ আছে এই যুক্তি দেখিয়ে ইমিগ্রেশন কর্মকর্তা তাকে ঢুকতে দেননি।

ইমিগ্রেশন কর্মকর্তার এই আদেশের বিরুদ্ধে আপিল করেন ওই বিএনপি নেতা। আর এই আপিলের রায় প্রকাশ হয় গত ১২ মে। ফেডারেল কোর্টের বিচারক জে ফদারগিল আবেদনটি খারিজ করে দিয়ে রিভিউ আবেদনের নিষ্পত্তি করেন। তিনি বলেন, ‘ইমিগ্রেশন ডিভিশনের পর্যালোচনায় আমি কোনো ভুল খুঁজে পাইনি।’

এর আগে বিএনপির সহযোগী সংগঠন স্বেচ্ছাসেবক দলের একজন কর্মীর রাজনৈতিক আশ্রয় সংক্রান্ত জুডিশিয়াল রিভিউর আবেদনে ফেডারেল কোর্টের বিচারক জাস্টিস ব্রাউন বিএনপিকে সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে অভিহিত করেছিলেন বলে জানা যায়। তখনো দেশে এই বিষয়টি নিয়ে বিতর্ক হয়েছিল।

You Might Also Like