ওয়ান্টেড সিক্যুয়েলেও সালমান খান

বলিউড অভিনেতা সালমান খান। ২০০১ থেকে ২০০৯ সাল পর্যন্ত নয় বছরে সালমান অভিনীত বেশকিছু সিনেমা ফ্লপ হয়। তবে ২০০৯ সালে ঈদ উপলক্ষে মুক্তি পায় এ অভিনেতার ওয়ান্টেড সিনেমাটি। এ সিনেমার মাধ্যমে আবারো সালমান বক্স অফিসে শাসন শুরু করেন।

কিন্তু মুক্তির পর আইনি জটিলতায় পড়ে সিনেমাটি। মেরুতের একটি স্থানীয় আদালতে প্রযোজক-পরিচালক বনি কাপুর, তার স্ত্রী শ্রীদেবী, নির্মাতা প্রভুদেবা এবং সালমান খানের বিরুদ্ধে কপিরাইট আইন লঙ্ঘনের অভিযোগ দায়ের করেন এক ব্যক্তি।

বিরবল সিং রানা নামের ওই ব্যক্তির অভিযোগ, বনি কাপুরের প্রেডাকশন হাউস বিএসকে নেটওয়ার্ক অ্যান্ড এন্টারটেইনমেন্ট তার ‘রাজা ভাই আইএসপি’ শিরোনামের সিনেমার চিত্রনাট্য চুরি করেছে। কিন্তু বিষয়টি অস্বীকার করেন ওয়ান্টেড টিম।

সাত বছর পর সম্প্রতি বিরবল সিং রানারওয়ান্টেড সিনেমার এই মামলা জিতেছেন বনি কাপুর। গত মঙ্গলবার মামলা থেকে ওয়ান্টেড টিমকে অব্যাহতি দিয়েছে আদালত।

এ প্রসঙ্গে বনি কাপুর সংবাদমাধ্যমে বলেন, ‘আমি আইনুসারে স্বত্ব কিনে ১৬টি সিনেমা নির্মাণ করেছি। ওয়ান্টেড সিনেমার ক্ষেত্রে আমি শুধু প্রভুদেবার (তামিল সংস্করণ নির্মাণ করেছিলেন) কাছেই স্বত্ব কিনেছি তা নয়, সিনেমার প্রকৃত সষ্ট্রা তেলেগু পোকিরি সিনেমার প্রযোজক পুরি জগন্নাথের কাছ থেকে হিন্দি রিমেকের জন্য অনুমতি নিয়েছি। প্রথম যখন আমাকে আদালতে তলব করা হয় অবাক হয়ে গিয়েছিলাম। কোনো দোষ না থাকা সত্বেও মামলার বাদী আমাদের নানাভাবে হয়রানি ও ব্ল্যাকমেইল করার চেষ্টা করেছে।’

এই মামলার জন্যওয়ান্টেড সিনেমার সিক্যুয়েল পিছিয়ে গেছে কিনা এমন প্রশ্নের উত্তরে বনি কাপুর বলেন, ‘না, এ মামলার জন্য সিক্যুয়েলে কোনো বাধা হয়নি। আমি যখন ভালো চিত্রনাট্য পাবো ওয়ান্টেড টু সিনেমা নির্মাণ করব। আর সালমান ছাড়া ওয়ান্টেড টু কল্পনা করা অসম্ভব।’

You Might Also Like