সৌদি সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিন: বিশ্ব সমাজের প্রতি ইরানের আহ্বান

সন্ত্রাসবাদ ও উগ্রবাদের প্রতি সৌদি সমর্থনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য আন্তর্জাতিক সমাজের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে ইরান। জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেস এবং নিরাপত্তা পরিষদের কাছে লেখা এক চিঠিতে এই আহ্বান জানিয়েছেন জাতিসংঘে নিযুক্ত ইরানি রাষ্ট্রদূত গোলাম-আলী খোশরো।

চিঠিতে তিনি লিখেছেন, “মধ্যপ্রাচ্যসহ বিশ্বব্যাপী সন্ত্রাসবাদ ও উগ্রবাদের প্রতি বেপরোয়া সমর্থন বন্ধ করতে সৌদি আরবকে বাধ্য করা এখন আন্তর্জাতিক সমাজের জন্য অপরিহার্য বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে।” খোশরো বলেন, সৌদি উপ যুবরাজ মোহাম্মাদ বিন সালমানের ইরান বিরোধী ‘বেআইনি ও উস্কানিমূলক’ বক্তব্য সত্ত্বেও আঞ্চলিক শান্তি প্রতিষ্ঠার স্বার্থে রিয়াদের সঙ্গে এখনো আলোচনায় বসতে রাজি আছে তেহরান।

সৌদি প্রতিরক্ষামন্ত্রী সালমান মঙ্গলবার সরাসরি ইরানের সঙ্গে আলোচনার সম্ভাবনা নাকচ করে দিয়ে বক্তব্য রাখেন। সৌদি আরব ইয়েমেনের বিরুদ্ধে আগ্রাসন বন্ধ করলে তেহরান রিয়াদের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করতে রাজি আছে বলে ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ঘোষণা দেয়ার পর সালমান ওই বক্তব্য দিয়েছিলেন। সৌদি প্রতিরক্ষামন্ত্রী বলেন, ইরান ‘মুসলিম বিশ্বকে নিয়ন্ত্রণ’ করতে চায় বলে তেহরানের সঙ্গে আলোচনা সম্ভব নয়।

এ সম্পর্কে জাতিসংঘে নিযুক্ত ইরানি রাষ্ট্রদূত আরো লিখেছেন, প্রতিবেশী দেশগুলোতে উত্তেজনা বাড়িয়ে দেয়ার কোনো আকাঙ্ক্ষা যেমন ইরানের নেই তেমনি তাতে তেহরানের কোনো লাভও নেই। এর পরিবর্তে ইরান এ অঞ্চলের দেশগুলোতে শান্তি ও স্থিতিশীলতা প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে সংলাপে বসতে রাজি আছে।

এর আগে গতকাল ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র বাহরাম কাসেমি বলেন, মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন দেশে চলমান সংকটগুলো কাটিয়ে উঠে মুসলিম বিশ্বে ঐক্য ও সংহতি প্রতিষ্ঠাকে ইরান সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেয়। কিন্তু সৌদি আরব ঠিক তার উল্টো নীতি গ্রহণ করেছে। তিনি বলেন, সৌদি-সমর্থিত ওহাবি মতবাদ থেকে সৃষ্ট তাকফিরি সন্ত্রাসবাদ মধ্যপ্রাচ্যের চলমান সংকটের প্রধান কারণ। #

পার্সটুডে

You Might Also Like