‘একটি মহল বিচার বিভাগ ও সুপ্রিম কোর্টের ওপর খবরদারি করতে চাচ্ছে’

বাংলাদেশ সরকারের একটি মহল শুধু বিচার বিভাগের ওপরই হস্তক্ষেপ করতে চাচ্ছেন না, সুপ্রিম কোর্টের ওপরও খবরদারি করতে চাচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা।

গতকাল মঙ্গলবার রাতে বগুড়া সার্কিট হাউসে জেলা জজশিপের আয়োজনে বিচার বিভাগীয় সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ অভিযোগ করেন। বিচার বিভাগ নিয়ে সরকারের একজন মন্ত্রীর সাম্প্রতিক সময়ে সমালোচনার পরিপ্রেক্ষিতে তিনি এ কথা বলেন।

বিচার বিভাগ নিয়ে প্রশাসনিক বিভাগের হস্তক্ষেপের সমালোচনা করে এস কে সিনহা বলেন, ‘প্রতি পদে পদে প্রশাসনের তরফ থেকে বাধা চলে আসছে। আমি মনে করলাম সারা বাংলাদেশের জুডিসিয়ারিকে ডিজিটালাইজেশন করব। কিন্তু ডিজিটালাইজেশন করব যে, সেই সরকারেরই একটা মন্ত্রণালয় যারা আমাদের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট তারাই চিঠি দিয়ে বলছে, ডিটিজালাইজেশন মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর আশা-আকাঙ্ক্ষার সঙ্গে এটা মেলে না।’ এ কারণে বিচার বিভাগকে আধুনিক করা যাচ্ছে না বলে উল্লেখ করেন তিনি।

সুরেন্দ্র কুমার বলেন, ‘সরকারের একটি মহল থেকে বলা হচ্ছে বিচার বিভাগ সহযোগিতা করছে না প্রশাসনকে। আমরা যদি সহযোগিতা না করতাম তাহলে মামলার জট এত কমত না এবং সরকারের রাজস্বও এত আদায় হতো না।’

প্রধান বিচারপতি উল্লেখ করেন, তিনি দায়িত্ব নেয়ার পর বিচার বিভাগের কারণেই সরকার সর্বোচ্চ রাজস্ব আদায়ে সক্ষম হয়েছে। বিচার বিভাগ সব সময়ই প্রশাসনকে সহায়তা করে কিন্তু প্রশাসনই কোনোদিনই সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেয় না। প্রশাসন সবসময়ই বিচার বিভাগের কাজের ওপর হস্তক্ষেপ করতে চায়।

তিনি বলেন, বিচার বিভাগকে ঢেলে সাজাতে চাই। কিন্তু একটি মহলের স্বদিচ্ছা না থাকায় তা সম্ভব হয়ে ওঠে না। তবে বিচার বিভাগ এমন থাকবে না। ধীরে ধীরে পরিবর্তন আসছে। আগামিতে আরও পরিবর্তন আসবে।

প্রশাসনের সহযোগিতা চেয়ে প্রধান বিচারপতি বলেন, বিচার বিভাগ সব সময় হাত বাড়িয়ে দেয়। কিন্তু প্রশাসন হাত বাড়িয়ে দেয় না। এরকম নানা সমস্যা নিয়ে বিচার বিভাগ চালাতে হচ্ছে বলে তিনি মন্তব্য করেন। এ সময় তিনি সব বিচারকদের পর্যাপ্ত নিরাপত্তা দিতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানান। এছাড়া, দেশের প্রত্যেকটি আদালতে নারীদের জন্য বিশ্রামাগার ও টয়লেট এবং পুরুষদের জন্য একটি করে টয়লেট স্থাপন করতে সরকারকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থার নেয়ার আহ্বান জানান।

এর আগে সকালে প্রধান বিচারপতি বগুড়ার জেলা জজ আদালত ও জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতসহ বেশ কিছু আদালতের কার্যক্রম পরিদর্শন করেন।#

পার্সটুডে

You Might Also Like