ভারতীয় সেনার মাথা কাটার অভিযোগ: পাকিস্তান বলল ব্যবস্থা নেয়ার উপযোগী তথ্য দিন

ভারতীয় দুই সেনার মাথা কেটে ফেলার বিষয়ে ব্যবস্থা নেয়ার উপযোগী তথ্য-প্রমাণ দেয়ার জন্য ভারতের সেনাবাহিনীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছে পাক সেনা কর্তৃপক্ষ।

কাশ্মিরের পুঞ্জ সেক্টরের নিয়ন্ত্রণ রেখা বা এলওসি’র কাছে গতকাল দুই সেনা মাথা কেটে ফেলা হয়েছে বলে ভারতীয় সেনাবাহিনী দাবি করেছে। ভারতের এ অভিযোগ পরিষ্কার ভাষায় অস্বীকার করেছেন পাকিস্তান সেনাবাহিনীর ডিরেক্টর জেনারেল অব মিলিটারি অপারেশন্স বা ডিজিএমও। পাক ডিজিএমও দাবি করেছেন, পাকিস্তান সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে যুদ্ধ বিরতি লঙ্ঘন করা হয়নি। বা এলওসি অতিক্রম করার কিংবা ভারতীয় সেনাদের মৃতদেহ বিকৃত করার মতো কিছু করা হয় নি।

পাকিস্তান সেনাবাহিনীর জনসংযোগ বিভাগ আইএসপিআর’এর বরাত দিয়ে স্পুতনিক এ খবর দিয়েছে। এতে আরো বলা হয়েছে, ভারতীয় অভিযোগের পর দুই দেশের সেনা কমান্ডার পর্যায়ের হটলাইন সংযোগ হয়েছে। রাওয়ালকোট-পুঞ্জ সেক্টরে দুই সেনাবাহিনীর মধ্যে এ সংযোগ স্থাপিত হয়।

এতে ভারতীয় ডিজিএমও’র পক্ষ থেকে এলওসি’র কাছাকাছি সীমান্তের ভেতর পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত আজাদ কাশ্মিরে অবস্থিত কথিত বর্ডার অ্যাকশন টিমের প্রশিক্ষণ শিবিরের উপস্থিতির বিষয় উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়েছে। এ ছাড়া, ভারতীয় সেনাদের মাথা কাটার বিরুদ্ধে নিন্দা জানান হয় এবং একে সব সভ্য আচরণ বিরোধী হিসেবে উল্লেখ করা হয়।

কাশ্মির নিয়ে পাকিস্তান এবং ভারতের মধ্যে তিন দফা যুদ্ধ হয়েছে। ২০১৬ সালে ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মিরের জনপ্রিয় হিজবুল মুজাহেদিন কমান্ডার বুরহান ওয়ানিকে ভারতের নিরাপত্তা বাহিনী হত্যা করার পর বর্তমান গোলযোগের সূচনা হয়।#

পার্সটুডে

You Might Also Like