‘আমেরিকা কোরিয় উপদ্বীপকে পরমাণু যুদ্ধের কাছাকাছি নিয়ে গেছে’

উত্তর কোরিয়া বলেছে, কোরিয় উপদ্বীপকে পরমাণু যুদ্ধের কাছাকাছি নিয়ে যাওয়ার জন্য আমেরিকাই দায়ী। একইসঙ্গে নিজের পরমাণু অস্ত্রভাণ্ডারকে ‘সর্বোচ্চ গতিতে’ সমৃদ্ধ করারও প্রত্যয় ব্যক্ত করেছে দেশটি।

দক্ষিণ কোরিয়া ও আমেরিকার যৌথ নৌমহড়ার কথা উল্লেখ করে উত্তর কোরিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একজন মুখপাত্র বলেছেন, গত অর্ধশতকের বেশি সময় ধরে দেশটির সঙ্গে আমেরিকার সংঘাত চললেও সাম্প্রতিক মহড়ার পর থেকে কোরিয় উপদ্বীপ পরমাণু যুদ্ধের যতটা কাছাকাছি পৌঁছেছে এর আগে কখনো ততটা পৌঁছেনি।

ওই মুখপাত্র বলেন, পিয়ংইয়ং-এর উপর আমেরিকার অব্যাহত চাপ প্রয়োগের প্রেক্ষাপটে উত্তর কোরিয়া সর্বোচ্চ গতিতে নিজের পরমাণু অস্ত্র শক্তিশালী করবে। তিনি আরো বলেন, উত্তর কোরিয়ার কাছে ‘শক্তিশালী পরমাণু অস্ত্র’ থাকার কারণেই অন্যান্য দেশে আমেরিকা যে আগ্রাসন চালায় তা দেশটিতে চালাতে পারেনি।

উত্তর কোরিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র আমেরিকাকে ‘আগ্রাসন ও যুদ্ধের হোতা’ এবং ‘শান্তি ভঙ্গকারী’ হিসেবে অভিহিত করেন।

সাম্প্রতিক সময়ে ওয়াশিংটন ও পিয়ংইয়ং-এর মধ্যে উত্তেজনা তুঙ্গে উঠেছে। মার্কিন সরকার বহুবার বলেছে, পিয়ংইয়ং-এর বিরুদ্ধে ‘সব ধরনের ব্যবস্থা নেয়ার’ পথ খোলা রাখা হয়েছে। অন্যদিকে আক্রান্ত হলে পরমাণু অস্ত্র দিয়ে পাল্টা আঘাত হানার হুমকি দিয়েছে উত্তর কোরিয়া।#

পার্সটুডে

You Might Also Like