দেশের প্রথম ‘ডিজিটাল সড়ক’ হচ্ছে রাজধানীতে

উন্নত বিশ্বের আদলে হচ্ছে রাজধানীর বনানী থেকে বিমানবন্দর পর্যন্ত দীর্ঘ ছয় কিলোমিটার ‘ডিজিটাল-সবুজ সড়ক’। সড়কের পাশে থাকছে অত্যাধুনিক প্রযুক্তির সুবিধাসহ ১২টি যাত্রী ছাউনি।

সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের তত্ত্বাবধানে বনানী থেকে বিমানবন্দর পর্যন্ত এ সড়কটির আধুনিকায়নের কাজ করছে ‘ভিনাইল ওয়ার্ল্ড’ নামের একটি বেসরকারি এ প্রতিষ্ঠান। প্রকল্প বাস্তবায়নে প্রায় ৯০ কোটি টাকা ব্যয় হচ্ছে। তবে সরকারের কোনো ব্যয় হচ্ছে না। নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠান বিজ্ঞাপন প্রচারের মাধ্যমে এই খরচ তুলে নেবে।

গত বছরের জুলাই মাসে এ সড়কের আধুনিকায়নের কাজ শুরু হয়েছে। ২০১৮ সালের জুনে শেষ হওয়ার কথা রয়েছে। এরপর জুলাই মাসে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আধুনিক সুবিধাসংবলিত ডিজিটাল সড়কের দুপাশের উদ্বোধন করবেন বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

বনানী-বিমানবন্দর ডিজিটাল সড়কে রয়েছে ১৯৫২ থেকে ১৯৭১ সাল পর্যন্ত আন্দোলন-সংগ্রামের বিভিন্ন ঘটনার মুরাল। এসব মুরাল অক্ষত রেখেই সৌন্দর্য বর্ধনের কাজ করা হচ্ছে।

বৃহস্পতিবার সরেজমিনে দেখা যায়, কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতাল, কুড়িল, শেওড়া, কাওলা ও বিমানবন্দরসহ কয়েকটি এলাকায় ১২টি যাত্রীছাউনি নির্মাণের কাজ শেষ পর্যায়ে রয়েছে। যাত্রী ছাউনি থাকছে ক্যাফে ও নামাজের স্থানের পাশে। ক্যাফে থেকে হালকা খাবারসহ যেকোনো খাবার কেনা যাবে কয়েন দিয়ে। পাওয়া যাবে মোবাইল ফোন রিচার্জ ও মোবাইল টপ-আপসহ এটিএম বুথ সেবা। এ ছাড়া যাত্রীছাউনির মধ্যে থাকবে আধুনিক টয়লেট। থাকবে মায়েদের সুবিধার্থে ব্রেস্ট ফিডিং কর্নার।

You Might Also Like