বিনোদ খান্না আর নেই

বলিউডের বর্ষীয়ান অভিনেতা বিনোদ খান্না আর নেই। আজ, বৃহস্পতিবার (২৭ এপ্রিল) সকালে মুম্বাইয়ের একটি হাসপাতালে তিনি মারা যান। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭০ বছর। অনেকদিন থেকে তিনি ক্যানসারে আক্রান্ত ছিলেন। প্রকাশিত প্রতিবেদনে এমনটাই জানিয়েছে ভারতীয় একটি সংবাদমাধ্যম।

বলিউড ক্যারিয়ারে ১০০টির বেশি সিনেমায় অভিনয় করেছেন বিনোদ খান্না। এছাড়া তিনি রাজনীতিতেও সক্রিয় ছিলেন। পাঞ্জাবের গুরদাসপুর থেকে পার্লামেন্ট সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন তিনি।

তার স্ত্রী কবিতা খান্না, ছেলে রাহুল, অক্ষয় ও সাক্ষী এবং মেয়ে শ্রদ্ধা খান্না। কবিতাকে বিয়ের আগে তিনি গীতাঞ্জলিকে বিয়ে করেছিলেন। কিন্তু পরবর্তীতে তাদের বিচ্ছেদ হয়।

৭০ ‍ও ৮০ দশকে জনপ্রিয়তা পেয়েছিলেন বিনোদ খান্না। প্রথমদিকে নেতিবাচক ও স্বল্প চরিত্রে অভিনয় করলেও পরবর্তীতে কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয়ের সুযোগ পান তিনি। ১৯৬৮ সালে মন কা মিত সিনেমার মাধ্যমে সিনেমায় অভিষেক হয় তার।

মেরে আপনে, মেরা গাঁও মেরা দেশ, ইমতিহান, ইনকার, অমর আকবর অ্যান্থনি, লাহু কে দো রঙ, কুরবানি, দয়াবান সিনেমায় অভিনয়ের মাধ্যমে তিনি বেশ জনপ্রিয় লাভ করেছিলেন। হাত কি সাফাই সিনেমায় পার্শ্ব চরিত্রে অভিনয় করে ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ড পেয়েছিলেন তিনি। এছাড়া ১৯৯৯ সালে ফিল্মফেয়ার আজীবন সম্মাননা এবং ২০০৭ সালে জি সিনে অ্যাওয়ার্ড আজীবন সম্মাননা লাভ করেন।

১৯৮২ সালে সিনেমায় অভিনয়ে বিরতি দেন তিনি। পাঁচ বছর বিরতির পর তিনি আবারো সিনেমায় চুক্তিবদ্ধ হন এবং ইনসাফ ও সত্যমেভ জয়তে দুটি জনপ্রিয় সিনেমা উপহার দেন। সাম্প্রতিক কালে দাবাং, দাবাং-টু এবং দিলওয়ালে সিনেমায় দেখা গেছে তাকে।

You Might Also Like