বাংলাদেশ সীমান্ত ‘সিল’ করে দেবে বিজেপি

আবারো বাংলাদেশ সীমান্ত সিল করে দেয়ার ঘোষণা দিলেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ। তিনি বলেন, ‘অাসামে ক্ষমতায় এসে গরু পাচার আর অনুপ্রবেশ বন্ধ করেছি। বাংলায় ক্ষমতায় এলেও তাই করব।’

কলকাতায় এক সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন। প্রসঙ্গত, পশ্চিমবঙ্গের নতুন নাম বাংলা।

বাংলায় গোরক্ষকদের বিষয়ে কি ব্যবস্থা নেয়া হবে, সাংবাদিকদের এমন প্রশ্ন কৌশলে এড়িয়ে গিয়ে তিনি বলেন, যে ক্ষমতায় আসবে সেই ঠিক করবে কি করা উচিৎ।
গত কয়েক বছরে বাংলার শাসন ব্যবস্থায় অবনতি হয়েছে বলেও আক্রমণ করেন তিনি।

অনুপ্রবেশ নিয়ে মমতাকে আক্রমণ করে তিনি বলেন, তৃণমূল ক্ষমতায় এসে অনুপ্রবেশ বন্ধ করতে পারেনি।

লোকসভা নির্বাচনের আগে এই অনুপ্রবেশকেই হাতিয়ার করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তার পথ ধরেই অমিত শাহও সেই অস্ত্রই বেছে নিলেন। এবার সরাসরি সীমান্ত সিল করার প্রতিশ্রুতি দিলেন তিনি।

বাংলাদেশের সীমান্ত সিল করার প্রস্তাব আগেও দিয়েছে মোদী সরকার। যেহেতু বাংলাদেশ ও ভারত সীমান্তের মধ্যে অনেক ফাঁক রয়েছে। তাই অনুপ্রবেশ কিংবা গরু পাচারের মত ঘটনা বিরল নয়। আর সেসব ঠেকাতেই বাংলাদেশ সীমান্তে প্রাচীর তুলে দেয়ার কথা ভাবছে কেন্দ্র।

কিছুদিন আগেই কেন্দ্র পরিসংখ্যান দিয়ে জানায়, বেআইনিভাবে ভারতে বসবাসকারী ২৫০ পাক ও ১৭৫০ বাংলাদেশি নাগরিককে গত তিনবছরে নিজেদের দেশে ফেরত পাঠানো হয়েছে।

এছাড়া, বিজেপি ক্ষমতায় আসার পর ৪,০২২ জনকে বেআইনি অনুপ্রবেশকারী হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে বলে জানায় অাসাম সরকার। ২০১৬ সালের মে মাস থেকে ফরেনার্স ট্রাইব্যুনাল ৪,০২২ জনকে বিদেশি হিসেবে ঘোষণা করেছে। ১৯৮৬ সালের পর থেকে রাজ্যে ৭৯,৭৭১ জনকে চিহ্নিত করা হয়েছে এবং এখনো পর্যন্ত ২৯,৭২৯ জনকে ফেরত পাঠানো হয়েছে।

কলকাতা২৪ অবলম্বনে

You Might Also Like