প্রেসিডেন্ট পদে আহমাদিনেজাদের নিবন্ধন

ইরানের প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আহমাদিনেজাদ আবারও প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ার জন্য নিবন্ধন করেছেন।

১৯ মে ইরানে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন হবে। এ নির্বাচনে প্রার্থী হবেন ক্ষমতাসীন প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি এবং তার জয়ের সম্ভাবনাই বেশি।

ইরানের সর্বোচ্চ ধর্মীয় নেতা আয়াতুল্লাহ আলী খামেনির আপত্তি সত্ত্বেও প্রেসিডেন্ট পদে প্রার্থিতার জন্য নিবন্ধন করেছেন আহমাদিনেজাদ।

আহমাদিনেজাদ কট্টরপন্থি শিয়া হিসেবে বিশ্বজুড়ে পরিচিত। তার শাসনামলে ইরানের সঙ্গে পশ্চিমা বিশ্বের দূরত্ব বাড়ে। ২০০৫ থেকে ২০১৩ সাল পর্যন্ত টানা দুই মেয়াদে ইরানের প্রেসিডেন্ট ছিলেন আহমাদিনেজাদ।

আবারও প্রেসিডেন্ট পদে প্রার্থী হওয়ার জন্য মঙ্গলবার দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে নিবন্ধন করেছেন আহমাদিনেজাদ। তাকে নিবন্ধন করতে দেখে হতবাক হয়েছেন কর্মকর্তারা।

নির্বাচনের জন্য নিবন্ধন করলেও প্রার্থী হবেন না বলে জানিয়েছেন প্রাক্তন এই প্রেসিডেন্ট। তিনি বলেছেন, সর্বোচ্চ ধর্মীয় নেতা আয়াতুল্লাহ আলী খামেনির কাছে তিনি প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। ১৯ মের নির্বাচনে তিনি প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন না।

আহমাদিনেজাদের ভাষ্য, তার প্রাক্তন ডেপুটি হামিদ বাঘাইয়ের প্রতি সমর্থন জানাতে তিনি নিবন্ধন করেছেন। বুধবার প্রেসিডেন্ট পদে নির্বাচনের জন্য নিবন্ধন করেছেন বাঘাই।

নির্বাচনে না দাঁড়াতে আলী খামেনির নির্দেশকে ‘নিষেধাজ্ঞা’ নয়, বরং ‘উপদেশ’ হিসেবে উল্লেখ করেছেন আহমাদিনেজাদ।

প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রার্থিতার জন্য ছয় নারীসহ ১২০ জন নিবন্ধন করেছেন। শনিবার পর্যন্ত নিবন্ধন চলবে। রাজনীতি ও ধর্মীয় যোগ্যতার ভিত্তিতে প্রার্থীদের তালিকা চূড়ান্ত ২৭ মার্চ তা প্রকাশ করবে গার্ডিয়ান কাউন্সিল।

You Might Also Like