যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত নয় মার্কিন বহরের এক-তৃতীয়াংশ বিমান

মার্কিন বিমান বাহিনীর জরুরি যুদ্ধ পরিস্থিতি মোকাবেলায় নিযুক্ত বিমান বহরের অন্তত এক-তৃতীয়াংশ দায়িত্ব পালনের উপযুক্ত নয়। এয়ার ফোর্স টাইমসের বরাত দিয়ে এ খবর দেয়া হয়েছে।

এতে বলা হয়েছে, উত্তর কোরিয়ার সম্ভাব্য পরমাণু হামলা প্রতিহত করার জন্য মার্কিন জরুরি বহরের ১০টি মধ্যে মাত্র ৭টি বিমান দায়িত্ব পালনের উপযোগী।

এ ছাড়া, উত্তর কোরিয়ার হামলা প্রতিহত করার মহড়ার সময়ে মার্কিন একটি পরমাণু বোমারু বিমানের মেরামতের প্রয়োজন দেখা দিয়েছিল। সে সময়ে বোমারু বিমানটি আর আকাশে উড়তে পারেনি। গুয়াম থেকে দু’টি বি-১-এর যাত্রা করার কথা থাকলেও শেষ পর্যন্ত আকাশে ওড়ে মাত্র একটি বিমান।

উত্তর কোরিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র তৎপরতার ওপর উপগ্রহ দিয়ে নজর রাখছে মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা। মার্কিন ডুবোজাহাজ, পরমাণু বোমাবাহী ক্ষেপণাস্ত্র জরুরি পরিস্থিতি মোকাবেলায় তৈরি হয়ে আছে। কিন্তু জরুরি প্রয়োজনের সময়ে যদি মার্কিন বিমানই উড়তে না পারে তবে এ জাতীয় তৎপরতা মারাত্মক বাধার মুখে পড়বে।

অবশ্য মার্কিন থিংক ট্যাংক হেরিটেজ ফাউন্ডেশনের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, জরুরি প্রস্তুতি নিয়ে উদ্বেগ মার্কিন বাহিনীর জন্য নতুন কিছু নয়। ২০০৩ সাল থেকে এ প্রস্তুতি ক্রমেই কমছে।

গত বছর মার্কিন বিমান বাহিনীর ভাইস চিফ অব স্টাফ ল্যারি স্পেন্সার কংগ্রেসকে বলেছিলেন, যুদ্ধের জন্য প্রয়োজনীয় প্রস্তুতির পরিপ্রেক্ষিতে বিচার করা হলে মার্কিন বিমান বাহিনীর অর্ধেক বিমানই টিকতে পারবে না।

You Might Also Like