রাষ্ট্রপতির কাছে প্রাণভিক্ষা চেয়েছেন জঙ্গি রিপন

ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত হরকাতুল জিহাদের (হুজি) জঙ্গি দেলোয়ার ওরফে রিপন রাষ্ট্রপতির কাছে আনুষ্ঠানিকভাবে প্রাণভিক্ষা চেয়েছেন।

সোমবার দুপুরে এই সংক্রান্ত একটি আবেদন পেয়েছেন বলে জানিয়েছেন সিলেট কেন্দ্রীয় কারাগারের জেল সুপার ছগির আলী।

জেল সুপার ছগির আলী বলেন, আজ দুপুরে রিপনের লিখিত ক্ষমা প্রার্থনার আবেদন আমরা পেয়েছি। পরে সেটা যথাযথ প্রক্রিয়ায় রাষ্ট্রপতি বরাবর পাঠানো হয়েছে।

এর আগে গত ২৩ মার্চ নিজের পরিবারের সদস্য ও আইনজীবীর সঙ্গে কথা বলে প্রাণভিক্ষা চাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন রিপন।

গত ২২ মার্চ হুজি নেতা মুফতি হান্নান, শরীফ শাহেদুল আলম ওরফে বিপুল এবং দেলোয়ার ওরফে রিপনের রিভিউ আবেদন খারিজের পূর্ণাঙ্গ রায়ের কপি সিলেট কেন্দ্রীয় কারাগারে এসে পৌঁছায়। সিলেট কারাগারে থাকা রিপনকে এ রায় পড়ে শোনানো হয়। পরে সন্ধ্যায় এ তিন জঙ্গির মৃত্যু পরোয়ানা বিচারিক আদালত থেকে কারাগারে পৌঁছায়।

প্রসঙ্গত, ২০০৪ সালের ২১ মে সিলেটে হযরত শাহজালাল (রহ.) এর মাজারের প্রধান ফটকে তৎকালীন ব্রিটিশ হাইকমিশনার আনোয়ার চৌধুরীর ওপর গ্রেনেড হামলা হয়। হামলায় দুই পুলিশ কর্মকর্তাসহ তিনজন নিহত এবং আনোয়ার চৌধুরীসহ ৭০ জন আহত হন। এ ঘটনায় দায়েরকৃত মামলায় ২০০৮ সালের ২৩ ডিসেম্বর মুফতি হান্নান, বিপুল ও রিপনকে মৃত্যুদণ্ড এবং মহিবুল্লাহ ওরফে মফিজুর রহমান ও আবু জান্দালকে যাবজ্জীবন দণ্ড দেন সিলেট দ্রুত বিচার আদালত।

রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করে আসামিরা। গত বছরের ১১ ফেব্রুয়ারি পূর্বোক্ত রায় বহাল রাখেন হাইকোর্ট। পরে আসামিদের আপিল গত ৭ ডিসেম্বর খারিজ করে দেন আপিল বিভাগ। চলতি বছরের ১৭ জানুয়ারি পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশিত হয়। গত ২৩ ফেব্রুয়ারি আসামিরা রিভিউ আবেদন করেন। ১৯ মার্চ সে আবেদনও খারিজ হয়। পরে গত মঙ্গলবার ২১ মার্চ রিভিউ খারিজের পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশিত হয়।

You Might Also Like