পাকিস্তানে শ্রীলঙ্কান ক্রিকেটারদের ওপর ‘হামলাকারী’ নিহত

পাকিস্তানে ২০০৯ সালে শ্রীলঙ্কান ক্রিকেটারদের ওপর হামলায় দায়ী সেই সন্ত্রাসী আফগানিস্তানে যুক্তরাষ্ট্রের বিমান হামলায় নিহত হয়েছেন।

শনিবার পেন্টাগন জানিয়েছে, গত সপ্তাহে আফগানিস্তানে যুক্তরাষ্ট্রের সন্ত্রাসবিরোধী বিমান হামলায় আল-কায়েদার জ্যেষ্ঠ নেতা কারি ইয়াসিন নিহত হয়েছেন।

পেন্টাগনের দাবি, ২০০৮ সালে ইসলামাবাদে হোটেলে ও ২০০৯ সালে শ্রীলঙ্কান ক্রিকেটারদের ওপর হামলার জন্য দায়ী এই আল-কায়েদা নেতা।

টাইমস অব ইন্ডিয়া অনলাইনের এক খবরে রোববার এ তথ্য জানানো হয়েছে।

কারি ইয়াসিনের নিহত হওয়ার তথ্য নিশ্চিত করে পেন্টাগন কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, তিনি ছিলেন আল-কায়েদার শীর্ষ পর্যায়ের সন্ত্রাসী। পাকিস্তানের বেলুচিস্তানের এই জঙ্গিনেতা তেহরিক-ই তালেবানের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। আল-কায়েদার অনেক সন্ত্রাসী হামলার পরিকল্পনা করেছিলেন তিনি।

আফগানিস্তানের পাকটিকা প্রদেশে সন্ত্রাসবিরোধী বিমান হামলায় নিহত হন কারি ইয়াসিন। ২০০৮ সালের ২০ সেপ্টেম্বর পাকিস্তানের ইসলামাবাদে ম্যারিয়ট হোটেলে হামলায় বেশ কয়েকজন নিহত হন। নিহতদের মধ্যে আমেরিকার দুজন সামরিক কর্মকর্তা ছিলেন।

২০০৯ সালে লাহোরে শ্রীলঙ্কান ক্রিকেটারদের লক্ষ্য করে চালানো হামলায় পাকিস্তানের ছয় পুলিশ সদস্য, দুজন বেসামরিক লোক নিহত হন ও শ্রীলঙ্কান ক্রিকেট টিমের ছয়জন আহত হন।

এক বিবৃতিতে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষামন্ত্রী জেমস মাট্টিস বলেছেন, ‘কারি ইয়াসিনের মৃত্যু এই নজির স্থাপন করে যে, যারা ইসলামের অপমান করে এবং নিরপরাধ মানুষকে হত্যার টার্গেট বানায়, তাদের নিস্তার নেই।’

আফগানিস্তানে পাকিস্তানি সন্ত্রাসী নিহত হওয়ায় আবার প্রমাণ করে যে, সেদেশে পাকিস্তানি সন্ত্রাসীদের অবাধ বিচরণ রয়েছে। তবে উভয় দেশই সন্ত্রাসীদের মদদ দেওয়ার জন্য পরস্পরকে দায়ী করে থাকে।

You Might Also Like