ভারতের বিরোধিতা সত্ত্বেও চীন-পাকিস্তান সিল্ক রোড প্রকল্পে সমর্থন রয়েছে জাতিসংঘের

পাক অধিকৃত কাশ্মিরের মধ্যদিয়ে যে অর্থনৈতিক করিডোর তৈরি করছে চীন-পাকিস্তান, তাতে আপত্তি জানায়নি জাতিসংঘ। ভারতের বিরোধিতা সত্ত্বেও তাতে সায় দিয়েছে জাতিসংঘ। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।
সিল্ক রোড প্রকল্পের আওতায় চীনের সঙ্গে প্রাথমিক পর্যায়ে মধ্য এশিয়া ও ইউরোপের এবং পরবর্তী পর্যায়ে গোটা বিশ্বের যোগাযোগ আরও মসৃণ করতে চান প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং। সেই প্রকল্পেরই নাম ওয়ান বেল্ট ওয়ান রোড (ওবিওআর)।
জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ আন্তর্জাতিক উন্নয়নের স্বার্থে চীনের এই প্রকল্পের সমর্থন দিয়েছে। চীন এই পদক্ষেপকে সাধুবাদ জানিয়ে বলেছে, দ্রুত এ উন্নয়নের কাজ এগিয়ে নেয়া হবে।
চীনের পশ্চিম প্রান্তের জিনজিয়াং অঞ্চল থেকে শুরু হয়েছে চীন-পাকিস্তান অর্থনৈতিক করিডোর। শেষ হয়েছে পাকিস্তানের দক্ষিণ-পশ্চিম প্রান্তের গোয়াদর বন্দরে। কিন্তু সড়ক এবং রেল পথে চীন থেকে পাকিস্তানে বা পাকিস্তান থেকে চীনে ঢোকার এই করিডোর গিলগিট-বাল্টিস্তানের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে।
পাকিস্তান অধিকৃত কাশ্মিরের এই গিলগিট-বাল্টিস্তানকে ভারত নিজের অবিচ্ছেদ্য অংশ বলেই মনে করে। চীন-পাকিস্তান যৌথভাবে সেই গিলগিট-বাল্টিস্তানের মধ্যে দিয়েই অর্থনৈতিক করিডোর বানানোর সিদ্ধান্ত নিলে ভারতের সার্বভৌমত্বকে অস্বীকার করা হয়, জাতিসংঘে এমনটাই জানিয়েছে নয়াদিল্লি।
নিরাপত্তা পরিষদ ভারতের সে আপত্তি খারিজ করে দিয়েছে এবং বৃহত্তর ওয়ান বেল্ট ওয়ান রোড প্রকল্পকে সবুজ সংকেত দিয়ে চীন-পাক অর্থনৈতিক করিডোরকেও বৈধতা দিয়েছে। এরপরেই বেইজিংয়ে চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র
হুয়া চুনয়িং জানিয়েছেন, গোটা বিশ্ব চীনের এই উদ্যোগকে সমর্থন করছে। ভারতের উচিত এ বিষয়ে আরও বাস্তবসম্মত অবস্থান নেওয়া এবং এই প্রকল্পের শরিক হওয়া।
চীনা কমিউনিস্ট পার্টির মুখপত্র গ্লোবাল টাইমসে লেখা হয়েছে, ভারতের উদ্বেগ সত্ত্বেও চীনের ওবিওআর উদ্যোগ আন্তর্জাতিক মহলের কাছ থেকে বৃহত্তর সমর্থন পেয়েছে।

You Might Also Like