আমেরিকায় ভারতীয়দের উপরে হামলার ঘটনায় সংসদে বিরোধীরা সোচ্চার, তৃণমূলের বিক্ষোভ

আমেরিকায় ভারতীয়দের উপরে পরপর হামলার ঘটনায় আজ সংসদে সোচ্চার হয়েছেন বিরোধীদলীয় নেতারা। সংসদের বাইরে গান্ধী মূর্তির পাদদেশে পশ্চিমবঙ্গের তৃণমূল এমপিরা প্ল্যাকার্ড হাতে নিয়ে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে প্রবাসী ভারতীয়দের উপরে নিগ্রহ বন্ধ করার দাবি জানান।

সংসদে আজ (বৃহস্পতিবার) কংগ্রেসের পাশাপাশি তৃণমূল এমপি’রা এ নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের উদ্দেশ্যে পদক্ষেপ নেয়ার দাবি জানালে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং সদস্যদের আশ্বস্ত করে বলেন, ‘বিদেশের মাটিতে ভারতীয়দের ওপর হামলার ব্যাপারে কেন্দ্রীয় সরকার আগামী সপ্তাহে বিশদে বিবৃতি দেবে। যেভাবে কানসাসে ইঞ্জিনিয়ার শ্রীনিবাস কুচিভোটলাকে গুলি করে খুন করা হয়েছে, তা অত্যন্ত গুরুত্ব দিয়ে দেখা হচ্ছে।’

সংসদে আজ কংগ্রেস নেতা মল্লিকার্জুন খাড়্গে বলেন, ‘ডোনাল্ড ট্রাম্প ক্ষমতায় আসার পর থেকেই আমেরিকায় ভারতীয়দের ওপর বাড়তে থাকা ‘হেট ক্রাইম’ বা ঘৃণাপ্রসূত অপরাধ নিয়ে প্রধানমন্ত্রী নিশ্চুপ রয়েছেন। এর কারণ কী?’

তিনি বলেন, ‘হেট ক্রাইমের বিষয়টি হালকাভাবে উড়িয়ে দেওয়া যায় না। বিদেশিরা যখন এ দেশে আসেন, মোদি সরকার তাদের স্বাগত জানায়। কিন্তু ডোনাল্ড ট্রাম্প মার্কিন প্রেসিডেন্ট হওয়ার পর থেকেই ভারতীয়দের উপরে হামলা বেড়েছে।’

আজ লোকসভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে তৃণমূলের সিনিয়র এমপি সৌগত রায় বলেন, ‘বিশেষ করে নতুন সরকার ক্ষমতায় আসার পর থেকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ভারতীয়দের বিরুদ্ধে ক্রমবর্ধমান বর্ণবিদ্বেষী আক্রমণের ফল এটি। এরকম পরিস্থিতিতে কেন্দ্রীয় সরকার, আমাদের বাকপটু, স্পষ্টভাষী প্রধানমন্ত্রী এই বিষয়ে চুপ করে আছেন কেন?’

পশ্চিমবঙ্গের তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এরআগে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন এবং পররাষ্ট্র মন্ত্রী সুষমা স্বরাজকে চিঠি লিখে প্রবাসী ভারতীয়দের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে বলেছেন। ওই ঘটনাগুলো উচ্চপর্যায়ে আলোচনা করারও দাবি জানিয়েছেন মমতা।

আমেরিকায় ভারতীয়দের উপরে হামলার ঘটনা নিয়ে আজ তৃণমূল কংগ্রেসের এমপি’রা সংসদ চত্বরে মহাত্মা গান্ধীর মূর্তির সামনে ধর্ণা-অবস্থান বিক্ষোভে শামিল হন। এমপিদের হাতে থাকা প্ল্যাকার্ডে লেখা ছিল, ‘বিশ্বের সব মানুষই সমান। সব দেশের মানুষই আমাদের ভাই-বোন। আমাদের কর্তব্য তাদের রক্ষা করা’, ‘প্রবাসী ভারতীয় ভাই-বোনেদের নিগ্রহ বন্ধ করতে হবে’ ইত্যাদি।

You Might Also Like