মার্কিন সরকারের নতুন অবস্থান উদ্বেগজনক : ইইউ

মার্কিন প্রশাসনের উদ্বেগজনক বিবৃতির সমালোচনা করেছেন ইউরোপীয় কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড টুস্ক। তিনি ওয়াশিংটনের নতুন অবস্থানকে ঝুঁকিপূর্ণ বলেও মন্তব্য করেছেন।

ইউরোপীয় ইউনিয়নের মাল্টা শীর্ষ সম্মেলনের আগে মঙ্গলবার এক চিঠিতে তিনি জোটের নেতাদেরকে অন্য দেশের সঙ্গে বাণিজ্য বাড়ানোর আহ্বান জানান। মার্কিন প্রশাসন ইউরোপ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যাওয়ার ইঙ্গিত দেয়ার পরিপ্রেক্ষিতে তিনি আহ্বান জানালেন।

ডোনাল্ড টুস্ক বলেন, “আমরা এখন তিনটি হুমকি মোকাবেলা করছি যা আগে কখনো অন্তত এই মাত্রায় ছিল না। প্রথম হুমকি হচ্ছেবাইরে হুমকি যা বিশ্ব ইউরোপের ভূরাজনীতির কারণে দেখা দিয়েছে। এছাড়া, দিন দিন বেড়ে চলা আগ্রাসী চীন বিশেষ করে সমুদ্রে দেশটির তৎপরতা, ইউক্রেন তার প্রতিবেশীর বিষয়ে রাশিয়ার অনুসৃত নীতি, যুদ্ধ, সন্ত্রাস এবং মধ্যপ্রাচ্য আফ্রিকার নৈরাজ্যকর পরিস্থিতি; এর পাশাপাশি মার্কিন নতুন প্রশাসনের উদ্বেগজনক বিবৃতিএসবই আমাদের ভবিষ্যতকে মারাত্মকভাবে অনিশ্চিত করে তুলছে।

ইউরোপীয় কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট চিঠিতে আরো বলেছেন, “বিশেষ করে ওয়াশিংটনের পরিবর্তনের কারণে ইউরোপীয় ইউনিয়নকে জটিল পরিস্থিতির ভেতরে ফেলে দিয়েছে। মার্কিন নতুন প্রশাসন সম্ভবত তাদের গত ৭০ বছরের পররাষ্ট্র নীতিকে প্রশ্নের মুখে ফেলে দিচ্ছে।

আগামী শুক্রবার ইউরোপীয় ইউনিয়নের নেতারা মাল্টায় শীর্ষ বৈঠকে মিলিত হবেন। এতে শরণার্থী সংকট এবং ইইউ থেকে ব্রিটেনের বের হয়ে যাওয়ার বিষয়টি বিশেষ গুরুত্ব দিয়ে আলোচনা করা হবে।

মার্কিন নতুন সরকারের পক্ষ থেকে ইউরোপীয় ইউনিয়নে সম্ভাব্য নতুন দূত টেড ম্যালোচ চলতি সপ্তাহে সতর্ক করে বলেছেন, আগামী দেড় বছরের মধ্যে ইউরোর মৃত্যু হবে। এছাড়া, ইইউ থেকে ব্রিটেনের জনগণ বেরিয়ে যাওয়ার পক্ষে ভোট দেয়াকে নতুন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প আনুষ্ঠানিকভাবে প্রশংসা করেছেন। ন্যাটো সামরিক জোট সংস্কারেরও আহ্বান জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। ট্রাম্প বলেছেন, ন্যাটো সেকেলে হয়ে গেছে কারণ বহু বছর আগে জোটের পরিকল্পনা করা হয়েছিল এবং জোটটি সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে তেমন কিছু করছে না

You Might Also Like