মার্কিন ভিসা নিষেধাজ্ঞাকে সন্ত্রাসীদের জন্য বড় উপহার বলল ইরান

ইরানসহ সাত মুসলমান দেশের বিরুদ্ধে আরোপিত মার্কিন ভিসা নিষেধাজ্ঞাকে সন্ত্রাসীদের জন্য বড় উপহার হিসেবে অভিহিত করেছে তেহরান।

পাশাপাশি তেহরান বলেছে, ইরানের সাধারণ মানুষের বন্ধু বলে আমেরিকা যে ভিত্তিহীন দাবি করে থাকে ভিসা নিষেধাজ্ঞা জারি করে তাকে মিথ্যা প্রমাণ করেছে ওয়াশিংটন। আমেরিকা সাধারণ ভাবে দাবি করে থাকে, তেহরান সরকারের সঙ্গে নানা বিষয়ে সমস্যা রয়েছে তবে ইরানি জনগণের বন্ধু ওয়াশিংটন সরকার ।

ইরানি নাগরিকদের ওপর ভিসা নিষেধাজ্ঞা আরোপের বিরুদ্ধে প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে অফিসিয়াল টুইটা একাউন্ট থেকে দেয়া ধারাবাহিক বার্তায় আজ (রোববার) এ সব কথা বলেছেন ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জাওয়াদ জারিফ।

এ ছাড়া, ইরান এর যথোপযুক্ত পাল্টা ব্যবস্থা নেবে বলে জানান তিনি। তিনি বলেন, ওয়াশিংটনের বৈরী নীতির থেকে মার্কিন নাগরিকদের আলাদা ভাবে দেখা হবে। বৈধ ভিসাধারী যে কোনো মার্কিন নাগরিককে ইরানে স্বাগত জানানো হবে বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

ট্রাম্পের ভিসা নিষেধাজ্ঞা আরোপের বিষয়টি ইতিহাসে সন্ত্রাসী এবং তাদের সমর্থকদের জন্য বড় উপহার হিসেবে চিহ্নিত হবে বলেও টুইটার বার্তায় উল্লেখ করেন তিনি।

তিনি বলেন, সামষ্টিক বৈষম্য বিভেদ রেখাকে আরো গভীর করে। এতে, কথা বলার সুযোগ পায় সন্ত্রাসীরা এবং তাদের দলে লোক সংগ্রহের ও দল ভারি করার অবকাশ বাড়ে বলে জানান তিনি।

গত শুক্রবার জারি করা ট্রাম্পের এক নির্বাহী আদেশ বলে ইরানসহ বিশ্বের সাতটি মুসলমান দেশের নাগরিকদের আমেরিকায় ঢোকার ওপর নিষেধাজ্ঞা কার্যকর করা হয়েছে। এ আদেশের শিকার বাকি দেশগুলো হলো, ইরাক, সিরিয়া, ইয়েমেন, সুদান, লিবিয়া এবং সোমালিয়া।

You Might Also Like