মাইকেলকে হত্যা করা হয়েছে

বিশ্ব সংগীতের এক প্রিয় নাম মাইকেল জ্যাকসন। ২০০৯ সালের ২৫ জুন কোটি কোটি ভক্তকে কাঁদিয়ে পরলোক গমন করেন তিনি। পরবর্তীতে জানা যায়, ওষুধের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ায় মৃত্যু হয় তার। কিন্তু সম্প্রতি এ কিংবদন্তি গায়কের মেয়ে প্যারিস জ্যাকসন দাবি করেছেন, তার বাবাকে পূর্বপরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে।

পশ্চিমা একটি সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে প্যারিস জ্যাকসন বলেন, “কিছু মানুষ তার পিছু লেগেছে এমনটা তিনি (মাইকেল জ্যাকসন) ইঙ্গিত দিয়েছিলেন। এক পর্যায়ে এসে তিনি বলেন, ‘তারা একদিন আমাকে হত্যা করবে।’’

তবে নির্দিষ্ট কারো নাম প্রকাশ না করে প্যারিস জানান, অনেক মানুষই তার বাবাকে হত্যা করতে চেয়েছিলেন। তিনি আরো দাবি করেছেন, পরিবারের সদস্য এবং মাইকেল জ্যাকসনের সত্যিকারের ভক্তরা ঠিকই জানেন যে, এ সংগীতিশিল্পীকে হত্যা করা হয়েছে।

এ তিনি বলেন, ‘এটি শুনতে একটি বড় ষড়যন্ত্র এবং আজব মনে হলেও প্রকৃত ভক্ত এবং পরিবারের সদস্যরা সবাই এটি জানেন। এটি ছিল পূর্ব পরিকল্পিত।’

তবে এ বিষয়ে বিস্তারিত কিছু না জানিয়ে তিনি বলেন, ‘এটি দাবা খেলার মতো। আর আমি সঠিক পথে এই দাবা খেলার চেষ্টা করছি। এখন পর্যন্ত আমি এতটুকুই বলতে পারব।’

সাক্ষাৎকারে প্যারিস জ্যাকসন চিকিৎসক কনরাড ম্যারেকে তার বাবার মৃত্যুর জন্য দায়ি করেন। তার প্রেসক্রিপশন অনুযায়ী ওষুধ সেবনের ফলেই তার বাবার মৃত্যু হয়েছে বলে তিনি মনে করেন। তিনি আরো জানান, বাবার মৃত্যুর পর হতাশাজনিত কারণে হাতের শিরা কেটে এবং ‍ওষুধ সেবনের মাধ্যমে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছিলেন তিনি।

You Might Also Like