শেষ মুহূর্তে ফিলিস্তিনকে ২২ কোটি ডলার দিয়েছেন ওবামা

প্রেসিডেন্ট থাকাকালে শেষ মুহূর্তে ফিলিস্তিন কর্তৃপক্ষের কাছে ২২ কোটি ১০ লাখ মার্কিন ডলার পাঠিয়েছেন বারাক ওবামা। মঙ্গলবার ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম ইনডিপেনডেন্ট এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

এর আগে ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষ বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংস্থায় সদস্য হওয়ার আবেদন জানালে মার্কিন কংগ্রেসের সংখ্যাগরিষ্ঠ রিপাবলিকান সদস্যরা এ অর্থ ছাড়ের বিষয়টি আটকে দিয়েছিল। পশ্চিম তীর ও গাজায় মানবিক সহায়তার জন্য এই অর্থ ব্যয় করা হবে। ২০ জানুয়ারি ট্রাম্পের শপথ নেয়ার কয়েক ঘন্টা আগেই এ অর্থ ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা।

এছাড়া জলবায়ু পরিবর্তনের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন প্রকল্পের জন্য ৪০ লাখ ডলার এবং জাতিসংঘের বিভিন্ন সংস্থার ১২ লাখ ৫০ হাজার ডলার ছাড় দেয় হয়। জাতিসংঘের জন্য বরাদ্দকৃত অর্থ যৌন নির্যাতন প্রতিরোধ, ওজন স্তর প্রতিরক্ষা ও শান্তিরক্ষা খাতে ব্যয় করা হবে।

প্রসঙ্গত, গত ডিসেম্বরে ইসরায়েলের সঙ্গে ওবামা প্রশাসনের সম্পর্কের কিছুটা অবনতি হয়। মূলতঃ জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে ইসরায়েলের বিরুদ্ধে নিন্দা প্রস্তাবে যুক্তরাষ্ট্রের ভেটো না দেয়াটাই ছিল এর কারণ। ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু সরকারের অভিযোগ এই প্রস্তাব নিয়ে ফিলিস্তিনিদের সঙ্গে গোপনে ‘ষড়যন্ত্র’ করেছে যুক্তরাষ্ট্র। অবশ্য নয়া মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ইসরায়েলের প্রতি তার অকুণ্ঠ সমর্থণ ব্যক্ত করেছেন।

You Might Also Like